সংশোধন চলচ্চিত্র নির্মাতা ও জনপ্রিয় অভিনেতা রাসেল মিয়া চাঁদপুর আসছেন।

 স্টাফ রিপোর্টারঃ সামাজিক, শিক্ষনীয় ও সমাজ সচেতনতামূলক গল্পের সংশোধন চলচ্চিত্র নির্মাতা রাসেল মিয়া আগামী ১০ জুলাই বুধবার ইলিশের বাড়ি আসছেন। এই জনপ্রিয় অভিনেতা চাঁদপুরের উদীয়মান সাংস্কৃতিক কর্মী ও তরুণ নাট্য নির্মাতা সাংবাদিক সাইদ হোসেন অপুর “Opu Media Zone” ইউটিউব চ্যানেলের ব্যবস্থাপনায় কয়েকটি সচেতনতামূলক ও শিক্ষণীয় শর্টফিল্মের শুটিং করবেন। “অপু মিডিয়া জোন” এই পর্যন্ত সামাজিক ও শিক্ষামূলক নাটক ও শর্টফিল্ম তৈরির কাজ করছেন। রাসেল মিয়া এখন পর্যন্ত ১০৭ টি স্বল্পদৈঘ সংশোধন নির্মান করেছেন। তার খন্ড খন্ড চলচ্চিত্রগুলো খুব অল্প সময়ের হলেও বর্তমানে ফেইসবুক, ইউটিউব, গণমাধ্যমে ভীষণ সারা ফেলেছে। ভিডিও চিত্রের মাধ্যমে মানুষের পরিবর্তন করা ও পাশে দাঁড়ানো সম্ভব বলে মনে করেন তিনি। ইউটিউবে সংশোধন লিখে বাটন চাপলেই স্কিনে ভেসে আসে রাসেল মিয়া এবং তার কলাকুশলীরা। চলচ্চিত্র গুলোর কাহিনী, সংলাপ, রচনা ও পরিচালনায় থেকে শুরু করে মূল চরিত্রে অভিনয় করেন রাসেল মিয়া। রাসেল মিয়া সকলের উদ্দেশ্যে বলেন আমার নির্মিত পর্বগুলো আগে দেখুন। দেখার পরে আপনারা যদি মনে করেন এই সংশোধন চলচ্চিত্র , ভিডিও চিত্রের মাধ্যমে সমাজ সেবায় এগিয়ে আসছে তাহলে সংশোধন এর সাথে থাকবেন। ভবিষ্যতে তার “সংশোধন” নিয়ে আরো ভিডিও নির্মান করার ইচ্ছা রয়েছে। ইউটিউবে বানিজ্য না করেই ১১০টি ভিডিও নির্মাণ করেছি। আমি ভিডিও তৈরি করে যাচ্ছি দেশ-ও সমাজের জন্য, আমি দর্শকদের উদ্দেশ্যে সবসময়েই বলে থাকিন সংশোধন শিরোনামে মোট ১০৭টি চলচ্চিত্র রয়েছে, এই চলচ্চিত্র গুলো আমি দেশ-ও সামাজিক অবক্ষয় রোধের লক্ষে নির্মাণ করেছি, ইউটিউবে Rasel Mia লিখে আমার ভিডিও গুলো ডাউনলোড করে ফেসবুকে/পেইজে প্রচার করার অনুরোধ রইল, এই চলচ্চিত্র দিয়ে আমি ইউটিউবে কোন বানিজ্য করি না, যদি ব্যবসার উদ্দেশ্যে ইউটিউবে চলচ্চিত্র গুলো আটকিয়ে রাখতাম তাহলে ভিডিও গুলো এতো ভাইরাল হতো না, আমার বিশ্বাস এই চলচ্চিত্রগুলো মানুষের কল্যানে লেগে থাকবে, আর এটাই আমার সফলতা। এই জনপ্রিয় অভিনেতা ব্রাহ্মণবাড়িয়া বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন।