মায়ের সাথে অভিমান করে আত্মহনন

প্রায় ২৪ ঘন্টা মৃত্যুর সাথে লড়াই করে অবশেষে রোববার বিকেলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছে হাজীগঞ্জের মাদ্রাসা শিক্ষার্থী সিপা আক্তার (১৭)। এর আগে গত শনিবার বিকেলে মাদ্রাসা থেকে দেরি করে ফেরার কারণে মা বকা দেয়ায় মেয়েটি নিজ গায়ে আগুন দেয় বলে পুলিশ জানায়।

আগুন লাগার ঘটনাটি ঘটে হাজীগঞ্জ বাজারস্থ পৌর ট্রাক রোডে ঐ শিক্ষার্থীদের ভাড়া বাসায়। নিহত সিপা উপজেলার বড়কুল পূর্ব ইউনিয়নের কাইজাঙ্গা গ্রামের প্রবাসী দেলোয়ার হোসেনের মেয়ে। সে হাজীগঞ্জ দারুল উলুম আহমাদিয়া কামিল মাদ্রাসার ১০ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী।

হাজীগঞ্জ থানার ওসি মোঃ আলমগীর হোসেন রনি চাঁদপুর কণ্ঠকে জানান, খবর পেয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ েআমি নিজে গিয়ে মেয়েটির জবানবন্দি নিয়েছি। সে আমাদেরকে জানিয়েছে মাদ্রাসা থেকে দেরিতে আসায় মা বকা দিয়েছে, তাই সে নিজেই গায়ে আগুন দিয়েছে। সর্বশেষ রোববার বিকেলে মেয়েটি মারা গেছে বলে শুনেছি।

হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্রে চিকিৎসক জানান, মেয়েটিকে হাসপাতালে আনার পরে দেখা গেছে তার শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়ে গেছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বিধায় আমরা রাতেই তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেই।

এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানতে সিপার মা শিল্পীর মোবাইল ফোনে কয়েকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। তবে তার নিকটাত্মীয়রা জানান, শিল্পী তার মেয়েকে নিয়ে হাসাপাতালে থাকার কারণে মোবাইলের চার্জ ফুরিয়ে তা বন্ধ হয়ে গেছে। তবে তার মেয়ের অবস্থা আশঙ্কাজনক।