ফরিদগঞ্জে হাইমচর প্রাণি সম্পদ দপ্তরের ভি,এফ,এ কর্মচারী আটক

ফরিদগঞ্জ (চাঁদপুর) সংবাদদাতা: হাইমচর উপজেলা প্রাণি সম্পদ দপ্তরের ভি,এফ,এ,কর্মচারী কর্মকর্তা শংকর চন্দ্র সমাজপতিকে ফরিদগঞ্জ থেকে শুক্রবার সন্ধ্যায় আটক করেছে থানা পুলিশ।
তথ্যসূত্রে জানাযায়,টাকা লেন দেনের বিষয়ে শংকরের বিরুদ্ধে ঢাকার কলাবাগান থানায় একটি মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী হিসাবে ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশ গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।
একটি সুত্র জানায়,সংকর চন্দ্র সমাজপতির কাছ থেকে ৪/৫ লাখ টাকা পাওনা ছিল এ্যাপেক্্র এ্যাগ্রোভেট অষুধ কোম্পানী বারবার তাগাদা দেওয়া সর্ত্ত্বেও টাকা না দিয়ে টালবাহানা করায় কোম্পানীটি তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে।
শংকর চন্দ্র সমাজপতিকে সম্প্রতি হাইমচর উপজেলায় বদলি করা হয়েছে। তিনি ফরিদগঞ্জেই অবস্থান করছেন। বদলি করা হাইমচরে না গিয়ে ফরিদগঞ্জেই থাকতে চাচ্ছেন। ফরিদগঞ্জে দির্ঘদিন এ কর্মচারী থাকার সুবাদে ব্যাপক অনিয়ম ও লোকজনের নিকট থেকে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। মুরগী ও গরুর ফার্ম করার অনুমতি পত্রের জন্য অনেক লোক থেকে টাকা নিয়ে টালবাহানা করে ফেরৎ দেওয়ার ঘটনাও রয়েছে। উপজেলার বিভিন্ন এলাকার লোকজন তার কাছে এসে প্রতারিত হওয়ার সত্যতা পাওয়া গেছে।
ফরিদগঞ্জ উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা: জ্যৌতির্মক ভৌমিক জানান, কোন সরকারী কর্মকর্তা/কর্মচারী কোন ধরণের চুক্তি নামায় ও স্ট্যাম্পে সহি স্বাক্ষর করা বেআইনী । শংকর এ কাজটি করা ঠিক হয়নি। বিভিন্ন এলাকার লোকজন থেকে নেওয়া টাকা ফেরৎ দেওয়ার সত্যতা স্বীকার করে তিনি আরো জানান, আমরা তার চাকুরীটা থাকার পক্ষে কাছ করছি।
এ বিষয়ে ফরিদগঞ্জ থানা অফিসার ইন চার্জ জানান, কোর্টের একটি পাওনা টাকার মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী হিসাবে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।