ফরিদগঞ্জে পরকীয়া প্রেমে বাধা দেয়ায় নিজের বসতঘরে অগ্নিসংযোগ

ফরিদগঞ্জে পরকীয়া প্রেমিকার সাথে মিশতে বাধা দেয়ায় নিজের বসতঘরে অগ্নিসংযোগ করে প্রেমিক মনির হোসেন নামে এক যুবক। এতে ঘরের আসবাবপত্রসহ মূল্যবান জিনিসপত্র পুড়ে যায়। সংবাদ পেয়ে পুলিশ মনির হোসেনকে আটক করেছে। ঘটনাটি গতকাল শনিবার সকালে উপজেলার গোবিন্দপুর ইউনিয়নের চাঁদপুর গ্রামে ঘটে। এ ব্যাপারে মনিরের মা ফুলজান বানু বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।

মনিরের পিতা আঃ কাদের জানান, দু’ সন্তানের জনক মনির হোসেন পার্শ্ববর্তী পারভীন বেগম নামে এক মহিলার সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি টের পেয়ে মনিরের স্ত্রী মায়া বেগম গত ৯/১০ মাস যাবৎ তার পিত্রালয়ে চলে যায়। এরপর মনির ঢাকাতে রাজমিস্ত্রীর কাজ করতো। সম্প্রতি মনির ঢাকা থেকে বাড়িতে না এসে পরকীয়া প্রেমিকার বাড়িতে এসে অবস্থান করে। বিষয়টি টের পেয়ে পরিবারের লোকজন শনিবার সকালে তাকে ওই বাড়ি থেকে নিজেদের বাড়িতে নিয়ে আসে। পরিবারের লোকজন মনিরকে শোধরানোর চেষ্টার একপর্যায়ে তাকে বসতঘরে আটকে রাখে। কিন্তু মনির ক্ষিপ্ত হয়ে বসতঘরে আগুন লাগিয়ে দেয়। যাতে ঘরের আসবাবপত্রসহ মূল্যবান জিনিসপত্র পুড়ে যায়। সংবাদ পেয়ে পুলিশ মনির হোসেনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পরে মনিরের মা ফুলজান বানু বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।