ফরিদগঞ্জে নদীতে মাছাষের হিসাবকে কেন্দ্র করে পার্টনারকে বেদম প্রহার । থানায় অভিযোগ।

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ফরিদগঞ্জ পৌর এলাকার ৭নং বদ্ধ জলাশয়ে মাছ চাষের হিসাবকে কেন্দ্র করে পার্টনারকে বেদম প্রহার করার ঘটনা ঘটেছে। কেরোয়া গ্রামের মজিদিয়া আইডিয়া ট্রাষ্ট হাসপাতালের সম্মূখের রাস্তার উপর শনিবার সকালে আঃ ছালামের ছেলে মোঃ ইসমাইল হোসেন(৩২),রুবেল হোসেন(২৮),ইকবার হোসেন (২৬)সহ পাশর্^বর্তী চরবসন্ত গ্রামের ইকবাল হোসেন(৪০)কে সাথে নিয়ে কথাকাটাকাটির এক পর্যায় দেশীয় লাঠি-সোটা নিয়ে পার্টনার লুৎফররহমান(৪৮) এর উপর জাপিয়ে পড়ে লাঞ্চিত করে।
এ ঘটনায় লুৎফর বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযোগ পত্রে উল্লেখ্য ,বিবাদীগন দুষ্ট প্রকৃতির লাঠিয়াল ও স›ত্রাসী বিধায় এলাকার মানুষ ভয়ে মুখ খুলতে পারছেনা। আমি ও আমার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি। আমোদের যে কোন মুহুর্তে হামলা করতে পারে। তাছাড়া আমাকে ও আমার পরিবার-পরিজনকে খুন করার হুমকী দিয়েছে। ইতিপূর্বেও বিবাদীরা সন্ত্রাসী কায়দায় আমার মামাকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে পিটিয়ে রক্তাত জখম করে। স্থানীয় লোকজন পরে ফরিদগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্ের ভর্তি করায়।
আমি ও আমার পরিবার পরিজনের নিরাপত্তাসহ দুষ্ট প্রকৃতির বিবাদীদেরকে কঠোর শাস্তি প্রদানের দাবী যানাচ্ছি আইন শৃংখলা বাহিনীর নিকট।