পাম ট্যাবলেটের মাধ্যমে পশুকে মোটাতাজা করা হচ্ছে ,জনস্বাস্থ্য হুমকির মুখে পড়বে ।

মতলব উত্তর প্রতিনিধি: মতলব উত্তর উপজেলায় ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী মোটাতাজাপশু করতে ব্যবহার করছে নানা ধরনের পাম ট্যাবলেট। এসব ক্ষতিকর ওষুধ পশুর দেহে প্রয়োগের ফলে রোগাক্রান্ত ও কম ওজনের গবাদি পশুর স্বাস্থ্য ওজন বাড়লেও জনস্বাস্থ্য হুমকির মুখে পড়ছে।
জানা যায়, শুধু গবাদি পশুই নয়, মোটা হওয়ার আশায় অনেক ভগ্ন স্বাস্থ্যের অধিকারী হালকা-পাতলা গড়নের নারী-পুরুষও এসব ট্যাবলেট খেয়ে মৃত্যুঝুঁকিতে পড়ছেন। যেসব পশুকে পাম ট্যাবলেট খাইয়ে মোটাতাজা করা হয়েছে সেগুলোর গোশ্ত খেলেও মানবদেহে বিভিন্ন ধরনের রোগ হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। পশু বিশেষজ্ঞদের মতে পাম ট্যাবলেট খাওয়ালে অল্পদিনের মধ্য স্বাভাবিকের চেয়ে পশুর ওজন একটু বেশি মনে হলেও এসব পশু জবাইরের পর কাক্সিক্ষত পরিমাণ গোশ্ত পাওয়া যায় না। কারণ পাম ট্যাবলেট খাওয়ানোর পর পশুর চামড়ার ভেতরে পানি জমে পশুকে বেশি মোটা দেখায়।
নাম প্রকাশ না করার স্বার্থে মতলব উত্তর উপজেলার কয়েকজন ব্যবসায়ী জানান, এসব পাম ট্যাবলেট ভারত, মিয়ানমার, থাইল্যান্ডসহ বিভিন্ন দেশ থেকে বাংলাদেশে আসে।
এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডাঃ ইসমাঈল হোসেন জানান, এ ট্যাবলেট খেলে মানব দেহের হাড় নরম হওয়াসহ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়।
উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ গিয়াসউদ্দিন ইবনে রহমান জানান, এ ট্যাবলেট ব্যবহারে পশু মোটা হলেও গোশ্ত স্বাদহীন হয়ে পড়ে ।