জলাসয়ের বাঁধ ভেঙ্গে নিস্ব মাছ চাষি সুমন

মো. শিমুল হাছান
ফরিদগঞ্জ পৌরসভা এলাকায় ফরিদগঞ্জ সেতু সংলগ্ন মথুরা চরে ২২শে মে বুধবার জলাসয়ের বাঁধ ভেঙ্গে রুই, কাতলা, তেলাপিয়া, সিলভার কার্পসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ ডাকাতিয়া নদীতে ভেসে যায়।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ঝিলের পাশে বসে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন সুমন পাটওয়ারী। অপরদিকে একদল লোক চল টেঁটা খাবর ও জাল নিয়ে আনন্দ উল্লাস করে ঝিল থেকে ভেসে আসা মাছ ধরতে পাশের ডাকাতিয়া নদীতে মাছ শিকার করে যাচ্ছে। আবার দু পাড় থেকে উৎফুল্ল জনতা চিৎকার করে আনন্দ প্রকাশ করতে দেখা যায়।
জানাযায়, ফরিদগঞ্জ পৌরসভায় চর মথুরা এলাকায় (মথুরার চর) এ বছরের পহেলা জানুয়ারী কাছিয়াড়া পাটওয়ারী বাড়ির সুমন পাটওয়ারী চরের লিজ নিয়ে প্রায় ৭০ লক্ষ টাকা মূল চালান খাটিয়ে মাছের চাষ করে আসছেন। মাছ চাষের সুবিদ্বার্থে তিনি পাম্পমিশিনের মাধ্যমে পাশের ডাকাতিয়া নদীর থেকে পানি বরাট করে রেখেছের। এতেই পানি লোড দিয়ে বুধবার ভোররাতে বাড়িতে চলে আসেন। সকালে ঝিলে গিয়ে দেখেন ঝিলের বাঁধ ভাঙ্গা সবগুলো মাছ চলে যাচ্ছে। পানির ¯্রােতের সাথে চাষের সকল মাছ ভেসে যায়।
তিনি এ প্রতিনিধিকে বলেন, ৪ মাস পূর্বে আমি ১০ লক্ষ টাকার বিনিময়ে চরের লিজ নিয়েছি এবং বিভিন্ন সংস্থার থেকে Ĺন করে ৩৫ লক্ষ টাকার খাদ্য ও বিভিন্ন প্রজাতির ১ লক্ষ ৪৫ হাজার মাছের পোনা এবং মিডিয়াম সাইজের মাছ ক্রয় করে চাষ করে আসছি। সব মিলিয়ে ৭০ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে আমার। এতবড় ক্ষতি হওয়াতে আমি এখন নিস্ব হয়ে আছি।