চাঁদপুর শহরের ব্যাংক কলোনীতে ডাকাতির ঘটনায় আটক-৪

শাহরিয়ার খাঁন কৌশিক ॥ চাঁদপুর শহরের ব্যাংক কলোনীতে বাড়ীর মালিক, স্ত্রী ও সন্তানের হাত পা বেঁধে মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় পুলিশ ৪ ডাকাতকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে। ডাকাতি মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নতুনবাজার পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ পরিদর্শক মোঃ সিরাজুল মোস্তফা সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স নিয়ে ঘটনার পরেই বেশ কয়েকদিন শহরের বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করতে সক্ষম হয়।

আটককৃতরা হল, লক্ষীপুর ইউনিয়নের বহরিয়া গ্রামের জালাল সরকারের ছেলে বিল্লাল সরকার(৩০), ব্যাংক কলোনীর মৃত মোকলেছ গাজীর ছেলে জিলানি(৪৫), জিটি রোডের মৃত আনোয়ার হোসেনের ছেলে জুয়েল আখন্দ(৩০) ও চক্ষু হাসপাতালের সামনে ইসমাইল মিজির ছেলে কাদের মিজি(২৮)।
মঙ্গলবার পুলিশ আটকৃকদের আদালতে প্রেরন করলে তাদের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়।

সোমবার (২৭ আগষ্ট) ভোর রাতে ব্যাংক কলোনীর বাসিন্দা সাংবাদিক অধ্যাপক মোহাম্মদ হোসেন খানের বাসায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ঘটনস্থলে ছুটে যান পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির পিপিএম। পুলিশ সুপারের নির্দেশে মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা নতুন বাজার পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ পরিদর্শক মোঃ সিরাজুল মোস্তফা ঘটনার পরেই ডাকাতির সাথে জরিত বিল্লাল সরকারকে আটক করে। সেই সূত্র ধরে পুলিশ গত সোমবার কমিউনিটি পুলিশের সদস্য জিলানীকে ও জুয়েল আখন্দকে আটক করে। তাদের তথ্য মতে পুলিশ মঙ্গলবার দুপুরে চেয়ারম্যান ঘাট এলাকা থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ইসমাইল মিজির ছেলে কাদের মিজিকে আটক করতে সক্ষম হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নতুনবাজার পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ পরিদর্শক মোঃ সিরাজুল মোস্তফা জানায়, সাংবাদিক অধ্যাপক মোহাম্মদ হোসেন খানের বাসায় ডাকাতির ঘটনায় ৪ জন ডাকাত আটক করতে সক্ষম হয়েছি। আটক ডাকাতরা আদালতে শিকারোক্তী মূলক জবান বন্ধী দিয়েছে। এই ঘটনার সাথে ৮ জন ডাকাত জরিত ছিলো বলে তারা জানিয়েছে। বাকিদের গ্রেপতার করার চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। ডাকাতি হওয়া জিনিসপত্র উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

উল্লেখ্য, সোমবার (২৭ আগষ্ট) আনুমানিক সাড়ে ৩টার দিকে ৭ জনের সংঘব্ধ ডাকাতদল মুখে গামছা পেছিয়ে সাংবাদিক অধ্যাপক মোহাম্মদ হোসেন খানের বাসায় প্রবেশ করে। এ সময় তারা তার স্ত্রী ও ছেলেসহ ৩ জনের হাত পা বেঁেধ রাখেন। ডাকাতরা ঘরে থাকা নগদ ৯০ হাজার টাকা, ৬টি মোবাইল সেট ও স্ত্রী ব্যবহৃত স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়।

ঘটনার সময় তার ছেলে ডাকাতদের সাথে কথা বলতে চাইলে তারা তাকে মারধর করেন। পরে চাঁদপুর মডেল থানায় ডাকাতি মামলা দায়ের করা হয়। মামলা নং ৫৩, তারিখ ২৭/৮/২০১৮।