চাঁদপুর পুরানবাজারে বিয়ের প্রলভনে যুবতিকে ধর্ষন ॥ লম্পট আটক

শাহরিয়ার খাঁন কৌশিক ॥ চাঁদপুর শহরেরর পুরানবাজারে বিয়ের প্রলভনে এক যুবতিকে বেশ কয়েকবার ধর্ষন করার খবর পাওয়া গেছে। পালাক্রমে পূনারায় নিজ বাড়িতে এনে অসামাজিক কার্যকলাপ করার সময় এলাকাবাসি লম্পট শোহরাব খাঁন(৪৮)কে হাতে নাতে ধরে পুলিশের কাছে তুলে দেয়।
গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ২ টায় পুরানবাজার এমদাদিয়া মাদ্রাসার সামনে মৃত রহমান খাঁনের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, পুরানবাজার ম্যেরকাটিজ রোডের মৃত রহমান খাঁনের ছেলে শোহরাব খাঁন এক বছর পূর্বে বাবুরহাট শীলনদীয়া গ্রামের মৃত শফিক মিজির মেয়ের সাথে পরিচয় হয়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে। পরে তাকে বিয়ের প্রলোভনে লম্পট শোহরাব খাঁন বেশ কয়েকবার পালাক্রমে শীলতাহানী করে। ঘটনারদিন সকাল ৮টায় শোহরাব খাঁন সেই যুবতিকে খবর দিয়ে তার বাসায় এনে বেশ কয়েকবার শীলতাহানী করে। এ সময় আশেপাশের লোকজনরা এই ঘটনা বুঝতে পেরে দুপুর ২ টায় তাদের হাতে নাতে আটক করে পুরানবাজার ফাঁড়ি পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ তাদের আটক করে পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে আসে।

এলাকাবাসি জানায়, বড় স্টেশন মাছ ঘাট এলাকার মাছের ব্যবসায়ী খোকনের ছোট ভাই লম্পট শোহরাব খাঁন । বড় স্টেশন মাছ ঘাটের পাশে সোহাগ আবাসিক হোটেল কিছুদিন পূর্বে মাছের ব্যবসায়ী খোকন ক্রয় করে তা পরিচালনার জন্য ছোট ভাই শোহরাব খাঁনকে দেয়। সে বিয়ের প্রলোভনে তাদের হোটেলে ঐ মেয়েকে নিয়ে বেশ কয়েকবার শীলতাহানী করেছে বলে যুবতী জানিয়েছে। লম্পট সৌরহাব খাঁন এছাড়া এই এলাকার অনেক অসহায় মেয়েদের টাকার লোভ দেখিয়ে তার বসত ঘরে নিয়ে শীলতাহানী করেছে। এই ধরনের ঘটনায় তার স্ত্রী ৯ বছর পূর্বে তাকে ছেরে চলে যায়। পুলিশ এই লম্পট শোহরাব খাঁনকে ধরার পরে সে ঐ মেয়েকে বিয়ে করবে বলে পুলিশকে জানায়। এই ঘটনায় লম্পট শোহরাব খাঁনের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করার জন্য পুলিশ প্রসাশনের দৃষ্টি কামনা করেছে এলাকাবাসি।