চাঁদপুর ও হাজীগঞ্জে শহরে হোটেল রেস্তোরাঁয় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

স্টাফ রিপোর্টার:

চাঁদপুর শহরের হোটেল রেস্তোরাঁর উপর ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালানো হয়েছে। গত ২৯ আগস্ট বুধবার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবিদা সুলতানা এ অভিযান চালান। অভিযানকালে একটি হোটেলকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অনিরাপদ উপায়ে খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষণ ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য প্রস্তুত করার মাধ্যমে নিরাপদ খাদ্য আইন-২০১৩ ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯-এর বিভিন্ন ধারা লঙ্ঘন করার কারণে এদিন চাঁদপুর শহরের রিযিক হোটেল এন্ড রেস্তোরাঁকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। জেলা প্রশাসকের নির্দেশক্রমে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবিদা সুলতানা মোবাইল কোর্টটি পরিচালনা করেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার হাজীগঞ্জ বাজারে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়েছে। আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বৈশাখী বড়ুয়া। এ সময় আদালত মোট ২১ হাজার টাকা জরিমানা এবং সতর্কতামূলক নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত বাংলাদেশ গ্যাস আইন-২০১০-এর বিভিন্ন ধারা অনুযায়ী তিনটি প্রতিষ্ঠানকে ৭ হাজার ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯-এর ধারা অনুযায়ী চারটি প্রতিষ্ঠানকে ১৪ হাজার টাকা জরিমানা এবং সতর্কতামূলক নির্দেশনা প্রদান করে।

খাজা বাবা মুড়ির মিলকে গ্যাস আইনে ৫ হাজার টাকা ও ভোক্তা অধিকার আইনে ৫ হাজার টাকা, মাম ফুডসকে ভোক্তা অধিকার আইনে ৫ হাজার টাকা, বসন্ধুরা হোটেলকে গ্যাস আইনে ১ হাজার টাকা ও ভোক্তা অধিকার আইনে ২ হাজার টাকা, গাউছিয়া হাইওয়ে রেস্টুরেন্টকে গ্যাস আইনে ১ হাজার টাকা ও ভোক্তা অধিকার আইনে ২ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

আদালত পরিচালনাকালে উপস্থিত ছিলেন বাখরাবাদ গ্যাস সিস্টেম লিঃ-এর সহ-প্রকৌশলী এসএম জাহিদুল ইসলাম, বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব আসফাকুল আলম চৌধুরী, সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক হায়দার পারভেজসহ নেতৃবৃন্দ, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কর্মকর্তাসহ সঙ্গীয় ফোর্স।