চাঁদপুরে সড়ক দূর্ঘটনায় সিএনজি চালক নিহত, আহত-৫


চাঁদপুর প্রতিনিধি \ চাঁদপুর শহরের মঠখোলা ওয়াপদাগেইড এলাকায় চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক সড়কে মালবাহী ট্রাক ও সিএনিজ চালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে ওসমান গনি অনিক (১৮) নামে সিএনজি চালক নিহত এবং আহত হয়েছেন সিএনজিতে থাকা আরো ৫ যাত্রী। গুরুতর আহতদের মধ্যে আবু ইউসুফ নামে এক যাত্রীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকায় রেফার করা হয়েছে।
শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় ওই এলাকার হাজী সুপার মার্কেটের সামনে এই দূর্ঘটনা ঘটে।

অপর আহতরা হচ্ছেন: ইকবাল হোসেন (১৮), তানভীর (২০), আইরিন (২০), আবু ইউসুফ  (৩৫)।

চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসক সৌজা উদ্দ দৌলা রুবেল জানিয়েছেন, একজন ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন। ইউসুফ নামে একজনকে ঢাকায় রেফার করা হয়েছে এবং বাকীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

অপরদিকে চাঁদপুর মডেল থানার এসআই সিরাজুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার থানায় নিয়ে আসে এবং ঘাতক পাথর বোঝাই ঢাকা মেট্রো ড-১২-০৪০০ হাইড্রোলিক পিকআপটি আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

ঘটনাস্থলে থাকা প্রত্যক্ষদর্শী আলমগীর প্রধানিয়া জানায়, বাবুর হাটের ইট বালুর ব্যবসায়ী কাদিরের হাইড্রোলিক পিকআপটি গাছতলা মানিকের খোলা থেকে পাথর লোড করে বাবুরহাট বিসিক এলাকায় রওনা হয়। এ সময় গাড়ির চালক মোহন বেপরোয়া গতিতে তার গাড়িটি চালিয়ে এসে বিপরীত দিক থেকে আসা যাত্রীসহ সিএনজি স্কুটারকে ধাক্কা মারে। এসময় ঘটনাস্থলেই সিএনজি চালক ওসমান গনি অনেক মারা যায়। গুরুতর আহত অবস্থায়  ৫ জন যাত্রীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়।
এ ঘটনায় স্থানীয়রা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এদিকে থানায় আটক করা হাইড্রলিক পিকআপটি ছাড়িয়ে নেওয়ার জন্য একটি দালাল চক্র ঘটনার পড়ে থানায় এসে অবস্থান নেয়। পরে নিহত পরিবারকে ম্যানেজ করে এক লক্ষ টাকার সমঝোতা করে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে।