চাঁদপুরে মাদ্রাসার ছাত্রকে কুপিয়ে গুরুত্তর জখম।। শরীরে ৬২ শিলাই

 শাহরিয়ার খাঁন কৌশিক।। চাঁদপুর শান্ত শহর আবারো অশান্ত হতে শুরু করেছে।ব্যাস্ততম শহরের হকার্স মার্কেটের ও হাকিম প্লাজার সামনে প্রকাশ্যে মাদ্রাসার ছাত্র আল ফাহাদ(১৭)কে কুপিয়ে গুরুত্তর জখম করেছে সন্ত্রাসীরা। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টায় সন্ত্রসীরা তার উপর হামলা চালিয়ে শরীরের ঘাড় থেকে শুরু করে মাজা পর্যন্ত কুপ দিয়ে জখম করে। তাকে প্রকাশ্যে এই ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে রাস্তার পাশে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। গুরুত্তর আহত অবস্থায় তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে এনে ভর্তি করায়। হাসপাতালের কত্যর্বরত ডাক্তার মাদ্রাসার ছাত্র আল ফাহাদের শরীরে ৬২ টি শিলাই দিয়েছে বলে জানিয়েছেন। তার অবস্থা আশংঙ্খাজনক দেখে বুধবার সকালে আহত ফাহাদকে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে রেফার করে। আহত আল ফাহাদ শহরের প্রফেসার পাড়া মোল্লা বাড়ি রোডের ডুবাই প্রভাসী শাহাজাহান মোল্লার ছেলে। ফাহাদ বিষ্ণনদী ইসলামিয়া মাদ্রাসার আলেম ২য় বর্ষের ছাত্র। আহত ফাহাদের বন্ধুরা জানায়, প্রফেসার পাড়া এলাকার এক বড় ভাই রাজুর সাথে ছাত্রদলের সন্ত্রাসী পালপাড়ার শাওন,মিশাল, জিহাদ সহ বেশ কয়েকজনের সাথে বাকবিতন্ডার সৃষ্টি হয়। তারা রাজুকে না পেয়ে ঘটনারদিন রাতে তারা পূর্বে ওৎ পেতে থেকে হামলা চালিয়ে ফাহাদকে একা পেয়ে আহত করে। আহত ফাহাদের মা ফাতেমা বেগম জানায়, মোবাইল ঠিক করতে ফাহাদ হকার্স মার্কেটে যায়। সেখান থেকে ফেরার পথে সন্ত্রসীরা তার উপর হামলা চালায়। এই ঘটনায় হামলাকারি সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এদিকে আসন্ন জাতীয় নির্বাচনের পূর্বে ব্যাস্ততম শহরের হকার্স মার্কেটের সামনে প্রকাশ্যে মাদ্রাসার কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় স্থানীয় ব্যবসায়ী ও জনগনের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পরেছে। যে কোন সময় আবারো শহরে রক্তক্ষয়ী সংঙ্গর্ষের সৃষ্টি হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে বলে অনেকে ধারনা করছে। শহরে আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্তনে রাখার লক্ষে পুলিশের অভিযান অভ্যাহত রাখার দাবি জানায় সচেতন মহল।