চাঁদপুরে পরীক্ষায় অংশগ্রহন করতে না পেরে মাদ্রাসা ছাত্রীর আত্মহত্যার চেষ্টা

চাঁদপুর প্রতিনিধি ॥ চাঁদপুর সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নে লক্ষ্মীপুর মোহাম্মদীয়া দাখিল মাদ্রাসার দাখিল পরীক্ষার্থী রুনা আক্তার নামে এক ছাত্রীর পরীক্ষার প্রবেশ পত্র না পেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। তবে পরিবারের লোকজন দেখে ফেলার কারণে সে প্রাণে রক্ষা পায়।

শনিবার দুপুরে ওই ইউনিয়নের বহরিয়া গ্রামের মোল্লা বাড়ীতে এই ঘটনা ঘটে।

ওই ছাত্রীর অভিবাবক ও মাদ্রাসার শিক্ষকদের সাথে আলাপ করলে তারা জানায়, মাদ্রাসার অন্যান্য পরীক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র আসলেও রুনার প্রবেশপত্র পরীক্ষার পূর্বে না আসায় ক্ষোভ ও অভিমান করে সে পরিবারের লোকজনের অগচোরে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়।

এ বিষয়ে মাদ্রাসা সুপার আহসান উল্যার কাছে প্রবেশপত্র না আসার কারণ জানার জন্য ওই মাদ্রাসায় গিয়ে তাকে উপস্থিত পাওয়া যায়নি এবং তার ব্যাক্তিগত মোবাইল নম্বরটিও বন্ধ রয়েছে।

মাদ্রাসার অফিস সহকারী আব্দুল খালেক হাওলাদার জানান, পিতার নাম ঠিক থাকলেও রুনার মায়ের নাম প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে ভুল দেয়ার কারণে তার প্রবেশপত্র দিনাপুর জেলায় চলেগেছে। কিন্তু পরীক্ষার পূর্ব পর্যন্ত এই সমস্যার সমাধান করা সম্ভব হয়নি।

ওই শিক্ষার্থীর মামা ওমর ফারুক জানায়, প্রতিষ্ঠানের সুপার আহসান উল্যাহর দায়িত্ব অবহেলার কারণে তার ভাগনি পরীক্ষা দিতে পারেনি এবং একটি বছর পিছিয়ে পড়লো।

এ বিষয়ে ওই শিক্ষার্থীদের পিতা নুরু মোল্লা চাঁদপুর মডেল থানা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ করেছেন।