চাঁদপুরে কোটি কোটি টাকা ব্যায়ে কচুয়া-হাজীগন্জ গৌরিপুর  নবনির্মিত  সড়ক ভেঙ্গে যাচ্ছে 

রফিকুল ইসলাম বাবু,চাঁদপুরঃ
কচুয়া, চাঁদপুর গৌরিপুর–কচুয়া-হাজীগঞ্জ সড়কটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন ও ব্যস্ততম সড়ক। সড়ক ও জনপথ বিভাগের ৪২ কিলোমিটার এ সড়ক দিয়ে কচুয়া, হাজীগঞ্জ, মতলব, চাঁদপুর, রামগঞ্জ, লক্ষীপুর ও নোয়াখালী অঞ্চলের লোকজন ঢাকা, চাঁদপুর, কুমিল্লা ও চট্রগাম যাতায়াত করে। দুর্ঘটনা এড়াতে নতুন করে ওই সড়কে বাঁক সরলীকরন, ব্রীজ, কালভার্টের কাজ শেষ হয়েছে । চাঁদপুর সড়ক ও জনপথ অফিস সুত্রে জানা যায় কুমিল্লার মেসার্স এমআরসি ও মেসার্স হাসান বিল্ডার্স ১৪ কোটি টাকা ব্যায়ে নির্মাণের কাজ করে। সরেজমিনে দেখা যায় ১২টি বাঁক সরলীকরন, ৪টি কালভার্ট ও ১টি ব্রীজ ইতিমধ্যে নির্মানের কাজ শেষ হয়েছে। কাজ শেষ না হতেই নির্মানাধীন সড়কটির অন্তত ২২টি স্থানে ভেঙ্গে যাচ্ছে । সড়কের কাজ করতে গিয়ে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার সড়কের বিভিন্ন স্তরে বালি, খোয়া ও পাথর আনুপাতিক হারে মিশ্রন না করার কারনে কাজ শেষ হতেই না হতেই সড়কটি ভেঙ্গে যাচ্ছে । কোন কোন স্থানে ভেঙ্গে সড়কের মাঝ খানে এসে পড়েছে। ফলে যে কোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা হওয়ার আশংকা করছে যাত্রী ও সাধারন জনগন। ভেঙ্গে যাওয়া কোন কোন স্থানে লাল পতাকাও দেওয়া হয়নি। গাড়ি চালক ও যাত্রী সাধারণ মনে করছে পালাখাল মোড়ে ২টি,দোয়াটি মেড়ে ২টিসহ অন্তত ৪টি স্থানে বাঁক সরলীকরণ খুবই ঝুকিপূর্ন হয়েছে। কারন বাঁক সোজা করতে গিয়ে প্রকৃত পক্ষে সোজা করা হয়নি। কারন সড়কের বাঁকের এক প্রান্ত থেকে অন্যপ্রান্তের গাড়ী দেখা যায়না। এতে দুর্ঘটানর ঝুঁকি আরো বেড়ে যাওয়ার আশংকা রয়েছে বলে যাত্রী ও গাড়ির চালকগন মনে করে। সড়কটির চাঁদপুর অঞ্চলের ৩২কি.মিটারের বাঁক সরলীকরণ ,ব্রীজ নির্মানের কাজ শেষে কচুয়- গৌরিপুর সড়কে মজবুতী করনের কাজ চলছে। মজবুতী করনের কাজ সঠিকভাবে করা ও ভেঙ্গে যাওয়া সড়কটির বিষয়ে জরুরী ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানান স্থানিয়রা ।