চাঁদপুরের ৫ টি আসনে আওয়ামী ও বিএনপি’র চূড়ান্ত প্রার্থী আজ

মিজানুর রহমান।। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আর মাত্র ২৩ তিন বাকি। ৯ ডিসেম্বর প্রার্থীতা প্রত্যাহার আর ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ।৩০ ডিসেস্বর ভোটগ্রহন।
কিন্তু এখনো চূড়ান্ত হয়নি চাঁদপুরের ৫ টি আসনে প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামীলীগ ও বিএনপি’র অধিকাংশ প্রার্থীর নাম।
তবে আজ শুক্রবার নৌকা ও ধানের শীষের একক মনোনয়ন পাচ্ছেন কারা তা জানা যাবে।
দুই দলই আজ চূড়ান্ত প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করবেন বলে দুই দলের সাধারন সম্পাদক ও মহাসচিব গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন।
প্রতীক পাবার পর পুরোদমে শুরু হয়ে যাবে চাঁদপুরে সবদলের নির্বাচনি প্রচারনা।এখন দুই দল নেতাকর্মিদের নিয়ে নির্বাচনি এলাকার জায়গা জায়গায় সমন্বয় সভা, উঠান বৈঠক,প্রয়াত নেতাদের কবর জিয়ার করছেন।
আওয়ামীলীগ চাঁদপুর – ৩ সদর ও হাইমচর আসনে বর্তমান এমপি ডাঃ দীপু মনি এবং চাঁদপুর- ৫ হাজীগঞ্জ ও শাহরাস্তি আসনে মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার ও বর্তামান সাংসদ মেজর অবঃ রফিকুল ইসলাম,বীর উত্তমকে পুণরায় দলের মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।কিন্তু চাঁদপুর ১ কচুয়া, চাঁদপুর ২ মতলব উত্তর ও দক্ষিন এবং চাঁদপুর – ৪ ফরিদগঞ্জ আসনে আওয়ামীলীগের দলিয় প্রার্থী হিসেবে দুজন করে চিঠি দেয়া হয়। তারা হলেনঃ
বর্তমান এমপি ও মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন মায়া বীর বিক্রম ও কেন্দ্রিয় নেতা অ্যাডঃরুহুল আমিন রুহুল,কচুয়ায় ড.মহীউদ্দীন খান আলমগীর ও সাবেক সচিব মোঃ গোলাম হোসেন এবং ফরিদগঞ্জে বর্তমান সাংসদ ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভূঁইয়া তার সাথে আছেন জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহাম্মদ শফিকুর রহমান ।এদের থেকে একজন করে প্রার্থীতা পাবেন। নৌকার প্রার্থী কে হচ্ছেন? সেটাই দেখার অপেক্ষা করছেন চাঁদপুরবাসী।
অপরদিকে চাঁদপুরের ৫ টি আসনের মধ্য চাঁদপুর -১ কচুয়া আসনে বিএনপি’র প্রার্থী হিসেবে সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও এমপি কারাবন্দী আনম এহছানুল হক মিলন যে ধানের শীষের প্রার্থী তা অনেকটাই নিশ্চিত। তবে চাঁদপুর – ২ মতলব উত্তর ও দক্ষিন আসনে কেন্দ্রিয় সদস্য ড. জালাল উদ্দিন নাকি সাবেক প্রতিমন্ত্রী নুরুল হুদার ছেলে তানভীর হুদা পাবেন চূড়ান্ত মনোনয়ন তা শুক্রবার জানা যাবে।
চাঁদপুর – ৩ সদর আসনে জেলা বিএনপির আহবায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকই যে পাচ্ছেন এ আসনে ধানের শীষের মনোনয়ন তা অনেকটাই নিশ্চিত। গ্রীন সিগন্যাল পাওয়ায় নির্বাচনি মাঠে বেশ তৎপর এখন শেখ মানিক।কাজ করছেন।তবে জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টের প্রার্থী হিসেবে নাগরিক ঐক্যের অ্যাডঃ ফজলুল হক সরকার, গণফোরাম সভাপতি অ্যাডঃ সেলিম আকবর এবং বিএনপি’র সাবেক এমপি রাশেদা বেগমও ধানের শীষের প্রার্থী হবার জন্য তারা লবিং করছেন।

চাঁদপুর – ৪ ফরিদগঞ্জ আসনে এমএ হান্নান এবং চাঁদপুর ৫ হাজীগঞ্জ ও শাহরাস্তি আসনে ইঞ্জিঃ মমিনুল হক যে ধানের শীষ পাচ্ছেন তা অনেকটা নিশ্চত বলে একটি সূত্রে জানা গেছে। তারপরও হাজীগঞ্জ ও শাহরাস্তি আসনে সাবেক এমপি এমএ মতিন মনোনয়ন পাবার চেষ্টা করছেন।