চাঁদপুরের প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে পরকীয়া, ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

শাহরিয়ার খান কৌশিক

চাঁদপুরে প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে পরকীয়া ঘটনায় ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।
চাঁদপুর সদর উপজেলা ১২ নং চান্দ্রা ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড বালিয়া গ্রামের পাটোয়ারী বািেড়ত এ ঘটনা ঘটে।
প্রবাসীর স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক গুঞ্জন ছড়েিয় পেেড়ছ।
শ্বশুরবাড়রি লোকজনের নির্যাতনের শিকার হয় প্রবাসীর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রেেয়ছ।
শনিবার দুপুরে দক্ষিন বালিয়া গ্রামের সোলেমান পাটোয়ারি বািেড়ত গিয়ে দেখা যায়, আশেপাশের মহিলা পুরুষ এই ঘটনাটি জানতে ঐ বাড়িতে এসে ভিড় জমায়।
সোলেমান পাটোয়ারী ছেলে কুয়তে প্রবাসী নয়ন পাটোয়ারীর সাথে ৬ বছর পূর্বে চাঁদপুর শহরের প্রফেসর পাড়া বাসিন্দা মালিকের মেয়রে সাথে বিয়ে হয়।
বিয়রে পর থেকেই প্রবাসীর স্ত্রীকে শ্বশুর বাড়রি লোকজন ব্যাপক নির্যাতন করতে থাকে। নির্যাতন সইতে না পেরে একই বাড়রি জাহাঙ্গীর মোল্লার ছেলে ফারুক মোল্লা সাথে পরকীয়া সম্পর্কে লিপ্ত হয়।
তারা নিজেরা বিয়ে করবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়ে দুজনের মধ্যে দৈহিক সম্পর্ক গড়ে উঠে। এক পর্যায়ে প্রবাসীর স্ত্রী ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে।
এই ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর প্রবাসীর স্ত্রীকে তার শশুর সোলেমান পাটোয়ারী ও বাসুর মফিজ পাটোয়ারী শারীরিক নির্যাতন করতে থাকে।
অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার গৃহবধূ জানায়, বিয়রে পর থেকেই স্বামী ও শ্বশুর, শাশুড়ি ব্যাপক নির্যাতন করেছে। বাসুর মফিজ পাটোয়ারী নিজেই তিনটে বিয়ে করেছে তার পরেও থেমে নেই, আমার দিকে কূ নজর পড়েছে ও অবৈধ কাজ করার প্রস্তাব দিয়েছে।
বিয়রে পর থেকেই আমার স্বামী আমার কোনো খোঁজ-খবর নেয় না। শশুর শাশুড়ি ও শ্বশুর বাড়রি লোকজনদের নির্যাতনের শিকার হয়ে নিজের জীবন ভবিষ্যৎ গড়তে ফারুকের সাথে সম্পর্ক গড়ে ওঠে।
শ্বশুরবাড়রি লোকজন তারা নিজেরা দায় এড়াতে বিভিন্ন অপপ্রচার চালাচ্ছে।
প্রবাসীর বাবা সালমান পাটোয়ারী জানায়, ১২ মাস পূর্বে ছেলে কুয়তে গিয়েছে। এর মধ্যেই ছেলের বউ ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। আমাদের নিজেদের আত্মীয় ফারুক মোল্লা সাথে তার অনৈতিক কার্যকলাপ গড়ে ওঠে। সে এই ঘটনার মূল হোতা। এ ঘটনার সুষ্ঠু সমাধান কামনা করছি।