ক্রিকেটে মনোযোগ রুবেলের, হ্যাপির হতাশা !

happyচিত্রনায়িকা নাজনীন আক্তার হ্যাপির করা মামলায় গ্রেফতার হয়েছিলেন পেসার রুবেল হোসেন। কয়েকদিন হাজতবাস করার পর গত রোববার জামিনে মুক্তি পান তিনি।

পরের দিনই তিনি যোগ দেন বিশ্বকাপ উপলক্ষে আয়োজিত অনুশীলন ক্যাম্পে। ১০ দিনব্যাপী এই ক্যাম্পে মনযোগ দিয়ে অনুশীলন করে যাচ্ছেন রুবেল হোসেন।

অন্যদিকে রুবেল জামিন পাওয়ায় হতাশ হ্যাপি। রুবেল জামিন পাওয়ার পর হ্যাপি বলেছিলেন, ‘আদালতে ন্যায় বিচার না পেলে অন্য কিছু করব।’  তার এই ‘অন্য কিছুর’ নানা মানে খুঁজতে গিয়ে গলদঘর্ম তার শুভাকাঙ্খীরা। হ্যাপির এই ‘অন্য কিছু’ নিয়ে তারা এখন খুবই চিন্তিত।

গত ১১ জানুয়ারি দুপুরে ঢাকা মহানগর দায়রা (ভারপ্রাপ্ত) জজ ইমরুল কায়েসের আদালত মামলার পুলিশ প্রতিবেদন জমা না হওয়া পর্যন্ত রুবেলের জামিনের আদেশ দেন। জামিন আদেশ বিকেলে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পৌঁছালে মুক্তি পান তিনি।

এর আগে গত ১৫ ডিসেম্বর হাইকোর্টে হাজির হয়ে ৪ সপ্তাহের আগাম জামিন নিয়েছিলেন রুবেল। এরপর ৮ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করে পুনরায় জামিন আবেদন করলে আদালত তা নাকচ করে রুবেলকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

উল্লেখ্য, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলার অভিযোগে রুবেল হোসেনের বিরুদ্ধে মিরপুর থানায় গত ১৩ ডিসেম্বর একটি মামলা দায়ের করেন ঢালিউডের উঠতি নায়িকা নাজনীন আক্তার হ্যাপি।