কাজের লোক থেকে কোটি কোটি টাকার মালিক বোরহান খালাসী!

মতলব উত্তর উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের বোরহান খালাসী (৪৫)। অল্প সময়ের ব্যবধানে সামান্য কাজের লোক থেকে বিলাসবহুল বাড়ি-গাড়ি, প্রভাব-প্রতিপত্তি এবং কোটি কোটি টাকার মালিক বনে যাওয়ার একমাত্র উদাহরণ তিনি।

সরেজমিনে তথ্য-উপাত্ত খুুঁজতে এসব তথ্য উঠে এসেছে। কিশোর বয়স থেকে শুরু করে ‘৯৬ সালের পূর্ব মুহূর্ত পর্যন্ত খুব কষ্ট করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। কখনো খেয়ে, কখনো না খেয়ে। ১৯৯৬ সালে চাঁদপুর-২ আসনের তৎকালীন এমপির বাসায় কাজ করতেন। বিনিময়ে মাসিক টাকা পেতেন। পাশাপাশি মেঘনায় অবৈধ বালু উত্তোলনের সাথে জড়িয়ে পড়েন। আর পিছু ফিরে তাকাতে হয়নি কোটি কোটি টাকার মালিক বোরহান খালাসীকে। টানা ১০ বছর বালু উত্তোলন করে কামিয়েছেন কোটি কোটি টাকা। নারায়ণগঞ্জে রয়েছে ২টি প্লট, একাধিক ফ্ল্যাট, বাড়িতে ক্রয় করেছেন কয়েশ শ’ শতাংশ জমি, প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে কার্গো জাহাজ, নামে-বেনামে রয়েছে অনেক সম্পদ, রয়েছে ৪টি ড্রেজার দিশা নওশিন, এশিয়া, আল্লাহর দান ফাতেমা ও মুম্মু সুমনা। মোহনপুর ইউনিয়নের চরাঞ্চলের বাহেরচরে খাস জমি গরিব কৃষকদের মাঝে বন্টনে অনেক টাকা প্রতি বছর আয় করেন। চোরাই তেল বিক্রি সিন্ডিকেটের সাথে নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে বোরহান খালাসীর। ২ কন্যা সন্তানের জনক তিনি। ২ সন্তানকে ভর্তি করিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ে। বড় মেয়েকে পাত্রস্থ করেছেন ফরাজীকান্দি ইউপি চেয়ারম্যানের ছেলের সাথে। রাজকীয় বিয়েতে খরচ করেছেন ৫০ লাখ টাকার উপরে। কাড়িকাড়ি টাকা হওয়াতে আত্মীয়তা করতে তার বেগ পেতে হয়নি।

এলাকার লোকজন জানান, বোরহানকে অন্যের ঘরে কাজ করতে দেখেছি। এক সময় সে মেঘনা নদীতে অবৈধ বালু উত্তোলনের টাকা আদায়কারী ছিলো। রাজনীতির প্রভাব খাটিয়ে শূন্য থেকে কীভাবে কোটি কোটি টাকার মালিক হওয়া যায় বোরহান খালাসী তার জ্বলন্ত উদাহরণ।

তথ্য সূত্রে, ২০১৭ সালে বালু উত্তোলনের টাকা আদায়কে কেন্দ্র করে রড দিয়ে আঘাত করে কলাকান্দা ইউনিয়নের রাসেল হোসেনকে খুন করেন তিনি। ওই মামলায় প্রধান আসামী হয়েও বীরদর্পে ঘুরে বেড়ান বোরহান। লোকমুখে শোনা যায়, তৎকালীন সময়ে ক্ষমতার অপব্যবহার করে ও ১০ লাখ টাকা খরচ করে বিপদমুক্ত হয় ডেঞ্জার ম্যানখ্যাত বোরহান খালাসী। তার রয়েছে নিজস্ব ক্যাডার বাহিনী। রাসেলের পরিবার এখনও ন্যায়বিচারের স্বার্থে সমাজপতিদের কাছে গিয়ে ধর্ণা দিচ্ছে।

দেশে শুদ্ধি অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। সর্বস্তরের মানুষ শুদ্ধি অভিযানকে স্বাগত জানালেও বোরহান খালাসীর মতো লোক খুশি হতে পারেনি। সাধারণ মানুষের প্রশ্ন : আলাদীনের আশ্চর্য প্রদীপ কোথায় থেকে পেলো বোরহান! দেশের প্রচলিত আইনে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে কোটি কোটি টাকার রহস্য উদ্ঘাটিত হবে।