কচুয়ায় কলেজ ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু

প্রতিনিধি ঳

চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার মনপুরা গ্রামে সালমা আক্তার (১৭) নামের এক কলেজ ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

সালমা আক্তার পেট ব্যাথা জনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে এমনি দাবি করে তাকে তড়িগড়ি করে প্রশাসনকে না জানিয়েই মঙ্গলবার ভোরে লাশ দাফন করেছে তার পরিবার।

সে ওই গ্রামের আবুল কালামের কন্যা ও মনপুরা নূরুল আজাদ কলেজে দ্বাদশ শ্রেণির মানবিক বিভাগের ছাত্রী।

সরেজমিনে স্থানীযরা জানান, সোমবার দুপুরে সালমা আক্তার অভিমান করে গৃহে থাকা কিটনাশক ঔষধ খেলে তার পরিবারের লোকজন পেটে জ্বালাপোড়া দাবি করে তাকে উদ্ধার করে কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে সন্ধ্যায় বাড়ি নিয়ে যায়।

পরে রাত ১০টার দিকে তাকে তার পরিবার কীটনাশক ঔষধ স্বীকার করে আবার ওই হাসপাতালে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎক মো: সোহেল রানা তার অবস্থা খারাপ দেখে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করলে পথিমধ্যে ওই দিন রাতে উপজেলার সুবিদপুর এলাকায় সে মারা যায়।

পরে সালমা আক্তারের পরিবার পরদিন মঙ্গলবার ভোরে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহলকে ম্যানেজ করে, উপজেলা প্রশাসনকে না জানিয়ে তড়িগরি করে তাকে মনপুরা গ্রামে তাকে দাফন করে বলে অভিযোগ উঠে।

অন্যদিকে তার মৃত্যু রহস্য ও তরিগরি দাফন নিয়ে এলাকায় নানান গুঞ্জন উঠেছে।

এই ব্যাপারে কচুয়া থানার ওসি সৈয়দ মাহবুবুর রহমান জানান, ‘সালমা আক্তার নামে কোন ছাত্রী স্বাভাবিক বা অস্বাভাবিক মৃত্যুর বিষয়ে কেউ থানাকে অবগত করেনি।’