আল আমিন একাডেমী স্কুল এন্ড কলেজ এডহক কমিটির লিভটু আপিল খারিজ ॥ একাডেমীর নিয়মিত গর্ভনিং বডি বহাল

স্টাফ রিপোর্টার আল আমিন একাডেমী স্কুল এন্ড কলেজ এর গর্ভনিং বডি বাতিলের ১২/৩/১৯ইং তারিখের কুমিল্ল শিক্ষাবোর্ডের চিঠি মহামান্য হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ এর বিরুদ্ধে এডহক কমিটির দায়েরকৃত লিভটু আপিল ১১৩৭/১৯ আপিলেট ডিভিশনে খারিজ।

প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে আপিলেট ডিভিশনে ফুল কোটে লিভটু আপিল ১১৩৭/১৯ নিস্পত্তির খারিজ আদেশ প্রদান করেছেন। ফলে একাডেমীর এডহক কমিটির কার্যকারিত বাতিল হয়। একডেমীর নিয়মিত গর্ভনিং বডি বহাল থাকে। আদালত সুত্রে জানা যায়, একাডেমীর অনুমোদিত গভনিং বডির মেয়াদ থাকা অবস্থায় কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরির্দশক বিগত ১২/৩/১৯ইং তারিখে আল আমিন একাডেমী স্কুল এন্ড কলেজের গর্ভনিং বডি বাতিলের চিঠি ইন্সু করেন।

বোর্ডের স্বারক নং ক.প/কমিটি/চাঁদ/৩৬ তারিখ ১২/৩/১৯ইং উক্ত চিঠির কার্যকারিতা স্থগিতাদেশ চেয়ে মহামান্য হাইকোট রিট পিটিশন নং-৩৩৩৮/১৯ দায়ের করে একাডেমী কর্তৃপক্ষ। বিগত ২১/৪/১৯ইং তারিখে উক্ত চিঠির কার্যকারিতা স্থগিতাদেশ প্রদান করে মহামান্য হাইকোট। মহামান্য হাইকোটের রিট পিটিশন -৩৩৩৮/১৯ মুলে স্থগিতা দেশ এর বিরুদ্ধে এডহক কমিটির পক্ষে লিভটু আপিল ১১৩৭/১৯ দায়ের করা হয়। চেম্বার জজ আদালতে।

বিগত ৯/৪/১৯ইং তারিখে চেম্বার জজ আদালত রিট পিটিশন ৩৩৩৮/১৯ সুত্রে বিগত ২১/৩/১৯ইং তারিখের আদেশের বিরুদ্ধে স্থগিতাদেশ প্রদান করে এবং ২৮/৪/১৯ইং তারিখে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে আপিলেট ডিভিশনে ফুল কোটে লিভটু আপিল ১১৩৭/১৯ নিস্পত্তির তারিখ ধার্য করেন। গতকাল ২৮/৪/১৯ইং তারিখে মহামান্য সুপ্রীম কোর্টের আপিলেট ডিভিশনে ফুল কেটে দোতরফা শুনানী অন্তে লিভটু আপিল ১১৩৭/১৯ খারিজ আদেশ প্রদান করেন। ফলে একাডেমীর এডহক কমিটির কোন কার্যকারিতা রহিল না। একাডেমীর নিয়মিত গর্ভনিং বডি প্রতিষ্ঠানের সকল কার্যক্রম পরিচালনার আইনগত বৈতা নিশ্চিত হলো।

আল আমিন সোসাইটির কর্তৃপক্ষ জানায়, গতকাল মহামান্য সুপ্রীম কোর্টের লিভটু আপিল ১১৩৭/১৯ খারিজ আদেশ এর কপি সংশ্লিষ্ঠ সকলের কাছে পাঠানো হয়েছে। একাডেমীর এডহক কমিটির কোন কার্যকারিতা রহিল না। একাডেমীর নিয়মিত গর্ভনিং বডি প্রতিষ্ঠানের সকল কার্যক্রম পরিচালনার আইনগত বৈতা নিশ্চিত হলো।

আল আমিন একাডেমী স্কুল এন্ড কলেজ কুমিল্লা বোর্ডের সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এ প্রতিষ্ঠানের দ্বারা চাঁদপুরবাসী সকলে উপকৃত হচ্ছে। প্রতিষ্ঠানের লেখা পড়ার ক্ষতি হয় এমন কাজ কোন পক্ষের দ্বারাই আশা করছেনা চাঁদপুরবাসী।