আজ শিক্ষার্থীরা বই উৎসবে মেতে উঠবে পাবে সাড়ে ৫৭ লাখ নতুন বই

নববর্ষে শিক্ষার্থীদের জন্যে আজ বাড়তি আনন্দের দিন। নতুন শিক্ষাবর্ষের প্রথমদিনই প্রতিটি শিক্ষার্থী হাতে পাবে নতুন বই। প্রতি বছরের মতো এবারও আজ ১ জানুয়ারি চাঁদপুর জেলার সর্বত্র বই উৎসব অনুষ্ঠিত হবে।

প্রাক-প্রাথমিক থেকে শুরু করে নবম শ্রেণি পর্যন্ত স্কুল, মাদ্রাসা ও ভোকেশনালে চাঁদপুর জেলায় মোট ৫৭ লাখ নতুন বই বিনামূল্যে বিতরণ করা হবে। তবে মাধ্যমিক ও প্রাথমিকের বই উৎসব পৃথক ভেন্যুতে হবে।

ইতিমধ্যে চাঁদপুর জেলায় চাহিদা অনুযায়ী শতভাগ নতুন বই বরাদ্দ পেয়েছে সংশ্লিট দপ্তরগুলো। গতকাল ৩১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার এ বিষয়টি জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সূত্রে নিশ্চিত হওয়া যায়। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, এ বছর জেলার বিভিন্ন ক্যাটাগরির ১১শ’ ৫৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্যে মোট ১৪ লাখ ৭৬ হাজার ২শ’ ৩৭টি বই এসেছে। যার মধ্যে চাঁদপুর সদরের ৩শ’ ৪টি বিদ্যালয়ের জন্যে নতুন বই বরাদ্দ এসেছে ২ লাখ ৮২ হাজার ৯শ’ টি। কচুয়ার ৩শ’ ২২টি বিদ্যালয়ের জন্যে ২ লাখ ১৯ হাজার ৪শ’ ৭৭টি, হাজীগঞ্জের ২শ’ ৪২টি বিদ্যালয়ে ২ লাখ ৯ হাজার ১শ’টি, হাইমচরের ৮৬টি বিদ্যালয়ের জন্যে ৭৮ হাজার ৬শ’ টি, শাহরাস্তির ১শ’ ৮০টি বিদ্যালয়ের জন্যে ১ লাখ ৪৭ হাজার ৬শ’ টি, ফরিদগঞ্জের ২শ’ ৭৭টি বিদ্যালয়ের জন্যে ২ লাখ ১৮ হাজার ৬শ’ ৬৪টি, মতলব দক্ষিণের ১শ’ ৮৭টি বিদ্যালয়ের জন্যে ১ লাখ ৩৪ হাজার ২শ’ ২০টি এবং মতলব উত্তরের ২শ’ ৭৮টি বিদ্যালয়ের জন্যে ১ লাখ ৮৫ হাজার ৬শ’ ৭৬টি বই।

অন্যদিকে জেলা শিক্ষা অফিসারের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, জেলায় মাধ্যমিক স্তরের বিভিন্ন ক্যাটাগরির ৫শ’ ৩১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের জন্যে ৪২ লাখ ৭৯ হাজার ১শ’ ৯টি বই দেয়া হবে। যার মধ্যে মাধ্যমিক বাংলা ভার্সনে ২৯ লাখ ১১ হাজার ৬শ’ ৩৫টি, মাধ্যমিক ইংরেজি ভার্সনে ৭ হাজার ৪শ’ ৯১টি, এসএসসি ভোকেশনালে ৩৫ হাজার ৩শ’ ৫৫টি, এসএসসি ভোকেশনাল (ট্রেডবই) ১৩ হাজার ৭শ’ ৭৫টি, দাখিলে ৯ লাখ ৬ হাজার ১শ’ ৯৯টি এবং আরো অন্যান্যভাবে (ইবতেদায়ী ৪ লক্ষ ৪ হাজার ৬’শ ৫৪টি) বই দেয়া হবে। আর প্রাথমিক ও মাধ্যমিক মিলিয়ে মোট ৫৭ লাখ ৫৫ হাজার ৩শ’ ৪৬টি বই দেয়া হচ্ছে।

জেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ গিয়াস উদ্দিন পাটওয়ারী এবং জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সাহাব উদ্দিন জানান, আমরা যে পরিমাণ বই বরাদ্দ চেয়েছি তা শতভাগ পেয়েছি। ইতিমধ্যে বই উপজেলা ভিত্তিক স্ব স্ব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পেঁৗছে গেছে।