আজ চাঁদপুরের অর্ধশত গ্রামে ঈদুল আযহা

সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে মিল রেখে আজ রোববার চাঁদপুরের অর্ধশত গ্রামে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপন করবেন মুসলিম সম্প্রদায়ের একাংশ।

  • এই দিন ফরিদগঞ্জের মুন্সিহাট বাজার বড় মসজিদে ইমামতি করবেন মাওলানা মাহবুবুর রহমান, সাড়ে ৯ টায় হাজীগঞ্জের সাদ্রা মাদরাসা মাঠে মাওলানা আরিফ চৌধুরী এবং বদরপুর ঈদগাহ মাঠে মাওলানা আবুল খায়ের।

এদিকে জেলার হাজীগঞ্জ, শাহরাস্তি, মতলব ও ফরিদগঞ্জের আরো বেশ কয়েকটি এলাকায় ঈদের নামাজের জামাত অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। পরে তারা পশু কোরবানি দেবেন। অন্যদিকে ঈদকে কেন্দ্র করে চাঁদপুরের এসব গ্রামে এখন উৎসবমূখর পরিবেশ বিরাজ করছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,হাজীগঞ্জ উপজেলার বড়কুল পশ্চিম ইউনিয়নের সাদ্রা হামিদিয়া মাদ্রাসা ও সাদ্রা দরবার শরীফের প্রতিষ্ঠাতা হচ্ছেন মাওলানা ইছহাক (রঃ)। তিনি ইসলামের এসব ধর্মীয় রীতিনীতি প্রচলন চালু করেন। তাঁর ইন্তেকালের পর তাঁর ৬ ছেলে এ মতবাদের প্রচার চালিয়ে আসছেন। এঁদের মধ্যে তাঁর বড় ছেলে মাওঃ আবু যোফার মোহাম্মদ আবদুল হাই হচ্ছেন দরবারের বর্তমান গদ্দীনশীন পীর।

দেশের মুন্সীগঞ্জ, শরিয়তপুর, বরিশাল ও মাগুরা জেলার বেশ কিছু এলাকার গ্রাম সমূহসহ খোদ রাজধানী ঢাকা, চট্টগ্রাম এবং চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ, ফরিদগঞ্জ, মতলব উত্তর ও কচুয়া উপজেলার অর্ধশত গ্রামে গ্রায় ৮৬ বছর ধরে এভাবে রোজা, ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহাসহ নানা ধর্মীয় অনুষ্ঠান উদ্যাপিত হয়ে আসছে। চাঁদপুর জেলার মধ্যে আজ ঈদ পালন হবে হাজীগঞ্জ উপজেলার সাদ্রা, সমেশপুর, অলিপুর, বলাখাল, মনিহার, বেলচোঁ, জাকনি, প্রতাপপুর, গোবিন্দপুর ও দক্ষিণ বলাখাল; ফরিদগঞ্জ উপজেলার সেনগাঁও, বাশারা, উভারামপুর, উটতলী, মুন্সিরহাট, মূলপাড়া, বদরপুর, পাইকপাড়া, সুরঙ্গচাইল, বালিথুবা, কাইতাড়া, নুরপুর, শাচনমেঘ, শোল্লা, হাঁসা ও চরদুঃখিয়া; মতলব উত্তর উপজেলার দশআনী, মোহনপুর, পাঁচআনী এবং কচুয়া উপজেলার উজানি গ্রামে।