আজ ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস

জেলা প্রশাসন ও আওয়ামী লীগের কর্মসূচি

আজ ১৭ এপ্রিল ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস। বাংলাদেশের জন্ম ইতিহাসের সাথে এ দিবসটি অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত। এদেশের মুক্তি-সংগ্রামের ইতিহাসে এ দিবসটি অনেক গুরুত্ব বহন করে। ১৭৫৭ সালে পলাশীর আম্রকাননে বাংলার স্বাধীনতার যে সূর্য অস্তমিত হয়েছিলো, ২শ’ ১৪ বছর পর ১৯৭১ সালের ১৭ এপ্রিল মেহেরপুরের বৈদ্যনাথতলায় মুজিবনগর সরকার গঠনের মধ্য দিয়ে সে সূর্য আবার উদিত হয়। এই মুজিবনগর সরকারের নেতৃত্বেই স্বাধীনতার নয় মাস বাঙালির মুক্তি-সংগ্রাম চলে। অবশেষে ১৯৭১-এর ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভ করে। সেদিন বিশ্বের মানচিত্রে বাংলাদেশ একটি স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। সেজন্যে মুজিবনগর দিবসের গুরুত্ব বাঙালি জাতির কাছে অপরিসীম।

দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদার সাথে উদ্যাপনের লক্ষ্যে চাঁদপুর জেলা প্রশাসন নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে : আজ সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে ‘ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতা’ শীর্ষক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, দিনের সুবিধাজনক সময়ে জেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে উক্ত বিষয়ের আলোকে আলোচনা সভা, রচনা প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং জেলার বিভিন্ন স্থানে প্রেক্ষাগৃহে বিনামূল্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক চলচ্চিত্র প্রদর্শনী।

এছাড়া চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। আজ সকাল ৭টায় জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, সাড়ে ৭টায় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান এবং সন্ধ্যা ৬টায় জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসের পটভূমি ও তাৎপর্যের উপর আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল। এসব কর্মসূচিতে দলের সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীকে উপস্থিত হওয়ার জন্যে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন আহামেদ ও সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটোয়ারী দুলাল অনুরোধ জানিয়েছেন।