হাজীগঞ্জে শিক্ষক কর্তৃক ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ

বিশেষ প্রতিনিধি
হাজীগঞ্জে শিক্ষক কর্তৃক ৪র্থ শ্রেণীর এক ছাত্রী (১১)কে শ্লীলতাহানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল রোববার উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল আউয়াল সরজমিনে তদন্তে গিয়ে ঐ ছাত্রীর লিখিত জবানবন্দি নিয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার হাটিলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।

images্‌্‌বিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিত্যলাল দেবনাথ (৪৮) শ্রেণী কক্ষে ঐ ছাত্রীর শ্লীলতাহানি করেন। বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকার মানুষের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে নিত্যলাল ৩ দিনের ছুটি নিয়ে এলাকা থেকে গা ঢাকা দেন। মেয়েটি বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামানের হেফাজতে আছে।

নিত্যলালের বাড়ি উপজেলার হাটিলা পূর্ব ইউনিয়নের গঙ্গানগর গ্রামে। সে ২ সন্তানের জনক। নিত্যলালের বিরুদ্ধে এর আগেও বিদ্যালয়ে একাধিক ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ রয়েছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা কামরুন্নাহার বলেন, শ্রেণি কক্ষে ইংরেজি ক্লাসে অসাবধানতাবশত মেয়েটির শরীরে নিত্যলালের হাত লেগেছে শুনেছি। তিনি এ বিষয়ে এর বেশি কিছু ঘটেনি বলে জানান।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল আউয়াল বলেন, ঘটনার আংশিক সত্যতা মিলেছে। আমি মেয়ের লিখিত জবানবন্দি নিয়েছি। অচিরেই ঐ শিক্ষকের বিরুদ্ধে শান্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। তবে নিত্যলাল দেবনাথ তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তিনি স্থানীয় একজন প্রভাবশালীর ষড়যন্ত্রের শিকার।