সাদ্রার পীর সাহেবের ইন্তেকাল

বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন, প্রখ্যাত মুফতি, হাজীগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী সাদ্রা দরবার শরীফের গদ্দীনশীন পীর, হযরতুল আল্লামা আবু যোফার মোহাম্মদ আবদুল হাই (৭০) আর বেঁচে নেই। তিনি গতকাল শুক্রবার সমেশপুর গ্রামের একটি মসজিদে জুমআর নামাজ শেষে সে মসজিদেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নালিল্লাহে———রাজেউন)। তিনি হাজীগঞ্জ উপজেলার ৭নং বড়কুল পশ্চিম ইউনিয়নস্থ সাদ্রা দরবার শরীফের আলা হযরত পীর সাহেব কেবলা, মুফতিয়ে আহলে সুন্নাত, আল্লামা ইসহাক (রঃ)-এর বড় সন্তান। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৩ ছেলে ও ৫ মেয়েসহ অসংখ্য ভক্ত, মুরিদ, ছাত্র ও আশেকানসহ গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তাঁর মৃত্যু সংবাদ শুনে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। আজ শনিবার বেলা ২টার সময় স্থানীয় সাদ্রা ফাযিল মাদ্রাসা মাঠে নামাজে জানাজা শেষে নিজ বাড়ি সাদ্রা বড় বাড়ির পারিবারিক গোরস্থানে তাঁকে দাফন করা হবে।
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সমেশপুর গ্রামের সর্দার বাড়ির জামে মসজিদে হুজুর (পীর সাহেব) জুম্মার নামাজ পড়ান। নামাজ শেষে এ মসজিদেই তিনি মুসলি্লদের নিয়ে মিলাদ পড়েন। মিলাদ শেষে মোনাজাত শেষ পর্যায়ে হঠাৎ করে মৃত্যুরকোলে ঢলে পড়েন পীর সাহেব। এ যেনো খোদার মেহমান খোদার ঘরেই তাঁর সানি্নধ্যে চলে যাওয়ার দৃশ্য।
পীর সাহেবের জীবদ্দশায় তিনি সাদ্রা ফাযিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ পদে আসীন ছিলেন এবং কয়েক বছর আগে তিনি চাকুরি থেকে অবসরে চলে যান। মরহুমের জানাজায় সকল আশেকান ও মুরিদানকে যথাসময়ে অংশগ্রহণের জন্যে অনুরোধ জানিয়েছেন তাঁর বড় সাহেবজাদা মাওলানা আরিফ চৌধুরী।