শাহরাস্তিতে পল্লী চিকিৎসক হত্যা মামলায় ১ জনের ফাঁসি, ২ জনের যাবজ্জীবন

রফিকুল ইসলাম বাবু ॥ চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে পল্লী চিকিৎসক আবুল বাশার (৬০) হত্যার দায়ে একজনকে ফাঁসি ও দুইজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। চাঁদপুরের জেলা ও দায়রা জজ সালেহ উদ্দিন আহমদ সোমবার দুপুর আড়াইটায় এ রায় দেন। ফাঁসির সাজাপ্রাপ্ত আসামী মনির হোসেন শাহরাস্তি উপজেলার পদুয়া এলাকার আবদুস সাত্তারের ছেলে। যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী আমির হোসেন দেবকরা এলাকার আবুল বাশারের ও আবদুল আজিজ একই এলাকার সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে। এদের মধ্যে আমির হোসেন পলাতক রয়েছে। মামলার এজাহারে জানা যায়; ২০০৯সালের ৯জানুয়ারি সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ডাক্তার আবুল বাসার বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলো। পথিমধ্যে দেবকরা গ্রামে সাজাপ্রাপ্তরা পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে মারাত্মক জখম করে সাথে থাকা ১ লাখ ৩০হাজার টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে আবুল বাসারকে উদ্ধার করে শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে কর্ত্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্যে তাকে ঢামেকে রেফার করে। ঢাকার নেয়ার পথে রাত সাড় ১২টার দিতে আবুল বাসার মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। এ ঘটনায় ছেলে জহিরুল ইসলাম থানায় একটি অভিযোগ দেন। সে অভিযোগের ভিত্তিতে থানার উপ-পরিদর্শক জহিরুল হক তদন্ত করে চার্জসীট দাখিল করেন। স্বাক্ষ্য প্রমাণ শেষে আসামী মনির, আমির ও আজজিকে দোষী সাব্যস্ত করে রায় প্রদান করেন বিচারক। রাষ্ট্র পক্ষে আইনজীবী ছিলেন পাবলিক প্রসিকিউটর এড. আমান উল্যাহ ও সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর এড. মোক্তার হোসেন অভি। আসামী পক্ষের আইনজীবী ছিলেন এড. ইকবাল বিন বাশার।