মেয়াদোত্তীর্ণ ইনজেকশন পুশ, চার নবজাতকের মৃত্যু

image_56995_0
টাঙ্গাইল: প্রতিনিধি, –

টাঙ্গাইল সদর হাসপাতালে মেয়াদোত্তীর্ণ ইনজেকশন পুশ করায় চার নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার সকাল সোয়া ৬টার দিকে একজন শিশু ও বেলা পৌনে ১২টার দিকে অন্য তিনশিশুর মৃত্যু হয়েছে।

মৃত ‍শিশুরা হচ্ছে- টাঙ্গাইল সদর উপজেলা বড়রিয়া গ্রামের শাজাহান মিয়ার ছেলে আলামিন (৮ দিন), কালিহাতী উপজেলার বানিয়াফৈর গ্রামের রিপন মিয়ার ছেলে (৪দিন), সদর উপজেলার লিটন মিয়ার ছেলে (২০দিন) এবং মোর্শেদার ছেলে (৮দিন)।

হাসপাতালের চিকিৎসক সাইফুল ইসলামের প্রেসক্রিপশন মোতাবেক হাসপাতালের নার্স রিতা ইনজেকশন পুশ করার কিছুক্ষণ পরই ওই চার নবজাতকের মৃত্যু হয়।

মৃত শিশুদের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হচ্ছে- মেয়াদোত্তীর্ণ ইনজেকশন দেয়ার কারণের তাদের মৃত্যু হয়েছে।

নার্স রিতা জানান, প্রতিদিনের মতো হাসপাতালের চিকিৎসক সাইফুল ইসলাম গত ০৩ অক্টোবর রাতে শিশুদের প্রেসক্রিপশন লিখে যান। সকালে সে মোতাবেক শিশুকে এমিস্টর ১০০ মিলি. ইনজেকশন পুশ করলে ১৫/২০ মিটের মধ্যে শিশুটির মৃত্যু হয়। পরে দুপুরে আরো ৩ শিশুকে ওই একই ইনজেকশন পুশ করার সাথে সাথেই তাদেরও মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে চিকিৎসক সাইফুল জানান, শিশুদের মৃত্যু ইনজেকশন পুশ করায় হয়েছে কিনা তদন্ত করে জানা যাবে। একথা বলেই মুঠোফোনের লাইন কেটে দেন।

এ বিষয়ে শিশু বিভাগের জুনিয়র কনসালটেন্ট জাহাঙ্গীর আলম জানান, ইনজেকশনের মেয়াদ ২০১৪ সাল পর্যন্ত থাকলেও সেটিতে কোনো প্রকার জীবাণু অথবা ভাইরাস ছিল কিনা, নাকি ভুল চিকিৎসায় শিশুদের মৃত্যু হয়েছে সে বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে ঘটানার পর থেকে আতঙ্কিত হয়ে হাসপাতালের শিশু বিভাগ পুরোটাই খালি হয়ে গেছে।