মতলব জেনারেল হাসপাতালের ব্যবস্থাপক – দেড় লাখ টাকা আত্মসাৎ করে লাপাত্তা

images

মতলব প্রতিনিধি-
মতলব শহরের টিএন্ডটি এলাকায় অবস্থিত মতলব জেনারেল হাসপাতাল নামক একটি বেসরকারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপকের বিরুদ্ধে দেড় লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল ৬ অক্টোবর রোববার হাসপাতালের পরিচালক (প্রশাসন) জিএম হাবিব খান থানায় ব্যবস্থাপক প্রলয় কুমার দাসের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেন। ঘটনার পর থেকে ব্যবস্থাপক পলাতক রয়েছে। তার বাড়ি কচুয়া উপজেলার জগতপুর গ্রামে।

জিএম হাবিব খান অভিযোগে উল্লেখ করেন, তিন বছর আগে প্রলয় কুমারকে উক্ত হাসপাতালে ব্যবস্থাপকের পদে চাকুরি দেয়া হয়। গত শুক্রবার ভোর রাতে তিনি রোগিদের দেয়া ২১ হাজার টাকা, হাসপাতালের ফার্মেসীর এক লাখ ১৯ হাজার টাকাসহ মোট এক লাখ ৪০ হাজার টাকা এবং ১০ হাজার টাকা মূল্যের একটি মোবাইলসহ জরুরি কাগজপত্র নিয়ে কর্মস্থল থেকে পালিয়ে যান। ঘটনার পর থেকে সে লাপাত্তা রয়েছে। টাকা এবং মোবাইল ছাড়াও উক্ত ব্যবস্থাপক হাসপাতালের মূল লাইসেন্স (অনুমতিপত্র), পরিবেশ অধিদপ্তরের মূল সনদপত্র, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মূল সনদপত্রসহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাগজও নিয়ে গেছে। তিনি আরো উল্লেখ করেন, প্রলয় কুমারের গ্রামের বাড়িসহ বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করেও এখন পর্যন্ত তার হদিস মিলছে না।

অভিযোগের ব্যাপারে প্রলয় কুমারের সাথে একাধিকবার তার মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে সংযোগ পাওয়া যায়নি।

মতলব দক্ষিণ থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, এ ব্যাপারে একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। প্রয়োজনে কচুয়া থানার সাহায্যও নেয়া হবে। এখনো মামলা হয়নি। মামলার প্রক্রিয়া চলছে।