মতলব উত্তরে কিশোরীর বিষপানে আত্মহত্যা

মতলব উত্তর উপজেলার জহিরাবাদ ইউনিয়নের নেদামদী এলাকায় সুমাইয়া আক্তার (১৬) নামে এক কিশোরী বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টায় উপজেলার জহিরাবাদ ইউনিয়নের নেদামদী গ্রামের দুবাই প্রবাসী আবদুস সাত্তার প্রধানের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

সুমাইয়া আক্তার উপজেলার নেদামদী গ্রামের দুবাই প্রবাসী আবদুস সাত্তার প্রধানের ছোট মেয়ে। পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সোমবার বিকেল ৪টার সময় সুমাইয়া এখলাছপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বাড়ি আসে। মেয়েকে খাবার দিয়ে তার মা মাহমুদা বেগম ছাগল আনতে বিলে যান। সাড়ে ৪টার সময় মা ঘরে এসে দেখেন মেয়ে সুমাইয়া আক্তার অসুস্থ হয়ে যন্ত্রণায় ছটপট করছে। কিছু একটা খেয়েছে বুঝে তাকে দ্রুত মতলব দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ েনিয়ে যান। সেখানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে তাকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখানে তাকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে ঢাকা মেডিকেলে প্রেরণ করলে পথিমধ্যে সোমবার রাত ৭টা ৩০ মিনিটের সময় সুমাইয়া মারা যায়। মঙ্গলবার সকালে মতলব উত্তর থানা পুলিশ খবর পেয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুফল চন্দ্র সিংহ সকাল ১১টার সময় নিহত সুমাইয়া আক্তারের বাড়িতে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। সুমাইয়া আক্তার বিষপানে আত্মহত্যার কারণ হিসেবে মানসিক সমস্যার কথা বলেছে তার মা, ভাই-বোন ও এলাকাবাসী।

মতলব উত্তর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুফল চন্দ্র সিংহ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্যে লাশ চাঁদপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলার ডায়েরি করা হয়েছে।