বাগাদীতে গরুর হাটকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষের আশঙ্কা ॥ এলাকায় উত্তেজনা

1383076_479535585479111_315291010_n
শহর প্রতিনিধি-
চাঁদপুর সদর উপজেলার ৮নং বাগাদী ইউনিয়নের চৌরাস্তায় গরুর হাটকে কেন্দ্র করে বাগাদী ইউনিয়নের সাবেক বিল্লাল চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী ইজারাদারের লোকজনদের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।
গত বুধবার রাতে বাগাদী চৌরাস্তা এলাকায় প্রতিপক্ষরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ইজারাদার নান্নু মিজিকে আক্রমন করার পাঁয়তারা করছিলো। খবর পেয়ে মডেল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার দুপুর ৩টায় চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদে নানুপুর চৌরাস্তা গরু হাট ইজারা সর্বোচ্চ দরপত্রে নান্নু মিজি ইজারাদার নিযুক্ত হয়। এ খবরে পূর্বের ইজারাদারের পক্ষে বাগাদী সাবেক বিল্লাল চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে তার ভাই বাবু, জাকির, কবিরসহ এক দল সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বাজারে মহড়া দিতে থাকে। ঘটনার দিন রাত ৯টায় গরুর হাট ডাক ইজারা পাওয়া নানুপুর গফুর মিজি বাড়ির নান্নু মিজিকে হামলা করার জন্য প্রতিপক্ষরা পাঁয়তারা চালায়। মডেল থানার উপ-পরিদর্শক আবু সাঈদ, শামিম সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রতিপক্ষদের ধাওয়া দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
ইজারাদার নান্নু মিজি জানায়, উপজেলা বুধবার বিকেলে বাগাদী চৌরাস্তা গরুর হাটে সর্বোচ্চ দরপত্রে ২ লাখ ৫৫ হাজার টাকার বিনিময়ে ইজারা পায়। এ খবর পেয়ে বাগাদী ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে তার ভাই ও একদল সন্ত্রাসী আক্রমন করার জন্য দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মহড়া দেয়। গরুর হাট ইজারা পাওয়ার পরে গতকাল চৌরাস্তা বালুরমাঠে বাঁশ গেড়ে গরুর হাট প্রস্তুত করার সময় বিল্লাল চেয়ারম্যানের ভাই বাবু, জাকির ও কবির পুনরায় দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ধাওয়া দেয়। বাগাদী চৌরাস্তায় গরুর হাট বসাতে দিবে না বলে হুমকি ধমকি প্রদান করে। গরুর হাটকে কেন্দ্র করে যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে বলে জানা যায়।