ফেনীতে আপত্তিকর অবস্থায় যুব মহিলা লীগ সভানেত্রী আটক, দৌড়ে পালানোর চেষ্টা !

feniফেনীর একটি চাইনিজ রেস্টুরেন্টে উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভানেত্রী আলেয়া আক্তার বেবিকে টাইমপাস চাইনিজ রেস্টুরেন্টের মালিক ওমর ফারুকের সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করা হয়েছে। যদিও এ সময় তিনি দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেন।

শনিবার বিকেলে এই ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ফেনী শহরে ট্রাংক রোডস্থ একটি চাইনিজ রেস্টুরেন্টে উপজেলা যুবমহিলা লীগের নেত্রী বেবি ও ব্যবসায়ী ওমর ফারুককে জনতা আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

জানা যায়, শনিবার বিকাল ৩টার দিকে সাংগঠনিক কাজে আলেয়া আক্তার বেবি শহরের লতিফ টাওয়ারের সামনে আসেন। সহকর্মীদের আসতে দেরি হওয়ায় তিনি টাওয়ারের ২য় তলায় রেস্টুরেন্টে বসেন। এ সময় তাকে একা পেয়ে রেস্টুরেন্টের মালিক ওমর ফারুক টাওয়ারের চতুর্থ তলায় তার কক্ষে নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে আপত্তিকর অবস্থায় তাদের আটক করা হয়।

উদ্ধারের পর উৎসুক লোকজনের সামনে যুব মহিলা লীগের নেত্রী জানান, ওই কক্ষে ওমর ফারুক তাকে জোরপূর্বক শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করে। টের পেয়ে আশপাশের লোকজন থানায় খবর দিলে ওসি (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ ও এসআই গোলাম হক্কানি ঘটনাস্থল থেকে তাদের আটক করে। থানায় নিয়ে আসলে দলীয় নেতাদের চাপে তাদের ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় পুলিশ। বিষয়টি নিয়ে ফেনীতে ব্যাপক চাঞ্চচল্য সৃষ্টি হয়েছে