পুরান বাজারে কবরস্থানের জায়গা দখল করে রাস্তা নির্মান

স্টাফ রিপোর্টার ॥
চাঁদপুর পুরন বাজার মধুসূধন স্কুল সংলগ্ন মেরকাটিজ রোডস্থ দেওয়ান আবুল খায়ের বাড়ির মোঃ মহসীন দেওয়ানদের পারিবারিক কবরস্থানের উপর দিয়ে কবর ভেঙ্গে পার্শ্ববর্তী আবুল খায়েরের স্ত্রী মায়া বেগম ও আব্দুল মতিন খান এর পুত্র দেলোয়ার হোসেন গং কর্তৃক রাস্তা নির্মানের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে চাঁদপুর পুলিশ সুপার বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়।
অভিযোগকারী দেওয়ান বাড়ির মোঃ দলিল উদ্দিনের পুত্র মহসীন দেওয়ান জানান, আমাদের পূর্ববর্তী মরহুম দেওয়ান মৌলভি আব্দুস সালাম তাহার মালিকিয় দখলি সম্পত্তি হইতে ৪৩৭৮ দাগে বাড়ির সম্মুখে কবরস্থানের জন্য জায়গা নির্ধারণ করে সেখানে কবরস্থান নির্মান করে। পরবর্তীতে মরহুম দেওয়ান মৌলভি আব্দুস সালাম ইন্তেকালের পর উক্ত দেওয়ান বাড়ির পারিবারিক (ওই স্থানে) কবর স্থানে তাকে দাফন করা হয়। উক্ত কবরস্থানটি দেওয়ান বাড়ির পারিবারিক কবরস্থান হিসেব ব্যবহার হয়ে আসছে এবং আমাদের পূর্ব পূরুষরদেরকে মৃত্যুর পর এখনেই দাফন করা হয়েছে। ১৯৬৫ সালে এ কবরস্থানটি নির্মান করা হয়। বর্তমানে এখানে প্রায় ১০-১৫টি কবর রয়েছে। বেশ কিছুদিন যাবত আমাদের পার্শ্ববর্তী আবুল খায়েরের স্ত্রী মায়া বেগম এ কবরস্থানের সাথে লাগোয়া তার জমি থাকায় সেখানে যাতায়াতের জন্য কবর ভেঙ্গে কবরস্থানের উপর দিয়ে রাস্তা নেওয়ার পায়তারা করছিলো। এ বিষয়টি নিয়ে চাঁদপুর পৌরসভাতোও মায়া বেগম একটি শালিশ বৈঠক ডাকেন। কিন্তু পৌরকর্তৃপক্ষ তদন্ত স্বাপেক্ষে কবর ভেঙ্গে কবরস্থানের উপর দিয়ে রাস্তা নির্মানের নির্দেশ না দেওয়ায় মায়া বগম মতিন খানের পুত্র দেলোয়ার হোসেনকে সাথে নিয়ে গত ১২ মে সন্ত্রাসী প্রকৃতির ৪০-৫০ জন লোক নিয়ে অবৈধ ভাবে জোর পূর্বক কবরস্থানের দেওয়াল ভেঙ্গে কবরের উপর দিয়ে রাস্তা নির্মান করেন। আমরা সেখানে বাঁধা দিতে গেলে তারা আমাদেরকে মারধর করে সেখান থেকে তাড়িয়ে দেয় এবং আমাদেরকে প্রাণ নাশের হুমকীও দেয়। আমরা নিরুপায় হয়ে বিষয়টি সম্পর্কে চাঁদপুর পুলিশ সুপার বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করি। অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তীতে পুরান বাজার পুলিশ ফাড়ির পরিদর্শক আব্দুর রশিদকে তদন্ত স্বাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য পুলিশ সুপারের কার্যালয় থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়। তারি প্রেক্ষিতে পুুুুুুুুলিশ পরিদর্শক আব্দুর রশিদ ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পেয়ে পরবর্তীতে ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান। এ বিষয়ে ভূক্তভোগী দেওয়ান বাড়ির মহসীন দেওয়ান সহ সকলের দাবী সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ যেন সুষ্ঠ তদন্ত স্বাপেক্ষে তাদের পারিবারিক বহু পুরনো এ কবরস্থানটি পূর্বের ন্যায় যেন ফিরে পায় তার ব্যবস্থা গ্রহণ করিয়া বিরোধী পক্ষ মায়া বেগম গংদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক।