চাঁদপুর সদর হাসপাতালের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা: এম এ রহিমের ভুল চিকিৎসায় রোগী মৃত্যু শয্যায়

images
স্টাফ রিপোর্টার ॥ চাঁদপুর সদর হাসপাতালের সিনিয়র কনসালটেন্ট (ইএনটি) ডাক্তার এম এ রহিমের ভুল চিকিৎসায় মতলব উত্তরের নওগাঁ গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক (২৬) এখন মৃত্যু শয্যায়। রোগীর আত্মীয় সজনদের কাছ থেকে অভিযোগে জানাযায়, রোগী আব্দুর রাজ্জাক তার গলায় টনন্সিল রোগে ভুগছিলেন। রোগ নিরাময়ে ডা: এম এ রহিমের কাছে ৫’শ টাকা ভিজিট দিয়ে ব্যবস্থাপত্র নেয়। এ সময় ডাক্তার বিভিন্ন পরিক্ষা-নিরিক্ষার আদেশ দিলে রোগী আব্দুর রাজ্জাক ঐসব পরিক্ষার রিপোর্ট নিয়ে ডাক্তারের কাছে স্বারণাপন্ন হয়। ডাক্তার এম এ রহিমের কথামত টনসেল অপারেশনে ১২ হাজার টাকা মৌখিক চুক্তি হয়। চাঁদপুরের হাজী মহসীন রোডের নভানা হাসপাতলে রোগী আব্দুর রাজ্জাক গত ২৭ সেপ্টেম্বর ভর্তি হয়। ঐদিন সাড়ে ১২টায় ঐ হাসপাতালে ডাক্তার এম এ রহিম অপারেশন করে। ঐসময় ডাক্তার কপালে হেডলাইট ব্যবহার না করে রোগীর অপারেশন করে বলে রোগীর আত্মীয়রা জানায়। কিছুক্ষণপর রোগীর রক্তক্ষরন হতে থাকলে আবারও দেড়টায় রোগীকে অজ্ঞান করে দ্বিতীয় বার অপারেশন করে। এরপরও রোগীর রক্তক্ষরন বন্ধ না হলে আবারও বিকাল ৪টায় রোগীকে ৩য় বারের মত অপারেশন করা হয়। এসময় রোগীর অবস্থা আরো খারাপ হতে থাকলে এবং রক্তক্ষরন বন্ধ না হওয়ায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রোগীকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে মূমুর্ষ অবস্থায় প্রেরন করে। তৃতীয়বার অপারেশনের পর থেকে ডাক্তার এম এ রহিমের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নাই, তার মোবাইল ফোন বন্ধ ছিল। বর্তমানে রোগী কুমিল্লা মেডিকেল হাসপাতালে মৃত্যু শয্যায় আছে বলে রোগীর আত্মীয় সজনরা আমাদের প্রতিনিধিকে জানায়।