চাঁদপুর আশিকাটিতে প্রবাসীর স্ত্রীর ভিডিও ইন্টারনেটে ছাড়া নিয়ে ব্যাপক তোলপাড়

Screenshot_2016-01-28-20-14-46-picsayরফিকুল ইসলাম,বাবু।

চাঁদপুর সদরের আশিকাটিতে প্রবাসীর স্ত্রীর অশ্লীন ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দিয়েছে পরকীয়া প্রমীক। এ নিয়ে এলাকায় সর্বস্তরে ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। এলাকায় বখাটে যুবকের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী। জানাযায়, আশিকাটি গ্রামের প্রবাসী ছোবহান খানের স্ত্রী সীমা বেগমের সাথে হাপানীয়া গ্রামের রশিদ মুন্সির ছেলে আলম মুন্সির সাথে পরকীয়া প্রেম গড়ে উঠে । ধীরে ধীরে তাদের মধ্যে অনৈতিক সম্পর্কে চলে যায়। এরপর বিষয়টি বাড়ির লোকসহ স্থানীয়দের চোখের ধরা পড়ে। গতবছর তাদেরকে অনৈকি কার্যক্রমের সময় স্থানীয়রা তাদের হাতে নাতে ধরে তখনকার ইউপি চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন মাষ্টারকে অবহিত করে। ইউপি চেয়ারম্যান ও এলাকারগন্যমান্যদের উপস্থিতিতে বখাটে আলম ভবিষ॥তে এধরনের কার্যক্রম থেকে ফিরে আসার অঙ্গীকার দিলে তখন স্থানীয় ভাবে বিষয়টি সমাধান করা হয়। কিন্তু চোর না শুনে ধর্মের কাহিনী, কয়েক দিন না যেতেই তাদের দুজনের মধ্যে ফের অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে উঠে। এরপর চলতি মাসের ১ তারিখে বখাটে আলম গোপন ক্যামরায় প্রবাসী ছোবহানের স্ত্রীর সাথে অনৈতিক কার্যক্রম ভিডিও করে ফেজবুকসহ ইন্টারনেটের বিভিন্ন মাধ্যমে ছেড়ে দিলে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী সকল শ্রেনীর মানুষের কাছে বিষয়টি ধরা পড়ে। এরপর বিষয়টি ধীরে ধীরে এলাকার সকলের মাঝে অবগত হতে থাকে। এ নিয়ে এলাকায় বর্তমানে এলাকায় বেশ উত্তপ্ত অবস্থায় রয়েছে। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হওয়ার পর থেকে প্রবাসীর স্ত্রী এলাকা থেকে গাডাকা দিয়ে আতœগোপনে রয়েছে। এ বিষয়ে প্রবাসী ছোবহানের বড় ভাই মোবারক খান বলেন, বিষয়টি স্পর্শ কাতর, তাই বিষয়টি কাউকে মুখ খলে বলতে পারছিনা। লোক লজ্জায় এখন আমরা রয়েছি। পরিবারের সকলের সাথে আলাপ করে মামলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এদিকে বখাটে যুবক আলমের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ উঠেছে, এলাকায় মাদকসহ কলমমতি শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ে আসার পথে ইপটেজিংসহ বিভিন্ন ভাবে উত্তপ্ত করছে। তাই এলাকাবাসী লম্পট আলমের গ্রেফতারের জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।