চাঁদপুরে কোরবানীর হাটগুলোতে শুরু হয়েছে পশু বিক্রি ॥ জাল টাকা সনাক্ত করতে অত্যাধুনিক মেশিন

76
নিজস্ব প্রতিবেদক ॥
চাঁদপুর শহরের কোরবানীর হাটগুলো এখন পর্যন্ত বিক্রি শুরু না হলেও শহরতলীর কোরবানীর হাটে ইতোমধ্যে বেশ গরু আসতে শুরু করেছে। সদর উপজেলার বাগাদী চৌরাস্তা, ইচলীঘাট সংলগ্ন বালুর মাঠে গতকাল শনিবার থেকেই গরু বেচা-বিক্রি শুরু হয়েছে। আগের চেয়ে অধিক নিরাপত্তা নিয়ে এ বছর মানুষ কোরবানীর পশু ক্রয় করতে পারবেন বলে আশাবাদি ইজারাদারগণ। তারা জানায়, আমরা এ বছর দূর দূরান্ত থেকে আগত গরুর বেপারীদের জন্য বিকাশে টাকা পাঠানোর ব্যবস্থা রেখেছি। তারা যেন টাকা পয়সা নিয়ে কোন ধরনের জামেলা পোহাতে না হয়। এছাড়া জাল নোট সনাক্ত করতে, পুলিশ সুপার মো. আমির জাফর পূর্বেই ঘোষনা দিয়েছেছিলেন জালনোট সনাক্তকরণ মেশিন প্রয়োজন হলে পুলিশের সাথে যোগাযোগ করার জন্য। শনিবার দুপুরে বাগাধী চৌরাস্তা কোরবানীর হাটে জালনোট সনাক্ত করণ মেশিনসহ ২জন পুলিশ সদস্যকে উপস্থিত দেখা যায়। এসব বাজারে যে সব পেবারী গরু নিয়ে এসেছেন, তাদের অধিকাংশ লোকই ফরিদপুর। তবে কিছু লোক আছে যশোর বর্ডার এলাকা থেকে আগত। এদের থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থাসহ নানা সুবিধা দিয়ে আসছেন ইজারাদার কর্তৃপক্ষ। তবে এ বছর ছোট গুরু তুলনায় বড় গরুর সংখ্যাই বেশী। তবে সর্ব নি¤œ ২৫ হাজার টাকা থেকে শুরু করে লাখ টাকা বেশী মূল্যেরও গরু এবছর এসব বাজারগুলোতে উপস্থিত হয়েছে। তবে বৃষ্টি না হলে শান্তি শৃংখলার মধ্যে সম্পূর্ণ বাজার নিয়ন্ত্রন সহ ব্যবসা পরিচালনা করতে পারবেন বলে আশাবাদী ইজারাদার কর্তৃপক্ষ।