আদালতে হাজিরা শেষে বিবাদীর উপর বাদীর উপর হামলা

স্টাফ রিপোর্টার

12_8546চাঁদপুর আদালতে মামলার হাজিরা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে বাদীপক্ষের হামলার শিকার হয়ে বিবাদী পক্ষের একজন গুরুতর আহত হওয়ার ঘটনা ঘটে। গতকাল ৩০ সেপ্টেম্বর দুপুর ১২টায় শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে এ হামলার শিকার হয় বিবাদী পক্ষের ২নং আসামী মোঃ সেলিম আখন্দ (৩৮)।
ঘটনার সূত্রে জানা যায়, গত ৫ বছর পূর্বে শহরের বিষ্ণুদী এলাকার মিয়াজী বাড়ির মৃত আলী মিয়াজীর মেয়ে রাবেয়া বেগমের সাথে পুরাণবাজার রঘুনাথপুর আখন্দ বাড়ি মোঃ দেলোয়ার আখন্দের ছেলে মোঃ শাকিল আখন্দের সাথে পারিবারিক ও সামাজিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সংসার ভালোই চলছিল। তাদের ঘরে একটি সন্তানও রয়েছে। কিন্তু রাবেয়া বেগম বিয়ের ২ বছর পর থেকেই একজনের সাথে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে। এ খবর তার স্বামী শাকিল জেনে গেলে শুরু হয় দু’জনের মধ্যে দাম্পত্য কলহ। এ নিয়ে স্বামী শাকিল তার শ্বশুড় বাড়ির লোকজনদের বিষয়টি জানায়। কিন্তু এতেও কোন কাজ হয়নি। উল্টো তার স্ত্রী রাবেয়া বেগম বাদী হয়ে ২০১১ খ্রিস্টাব্দে তার স্বামী শাকিলের বিরুদ্ধে চাঁদপুর আদালতে একটি যৌতুকের মামলা দায়ের করে। ঐ মামলার ২ নম্বর আসামী শাকিলের বড় ভাই আহত সেলিম। স্ত্রী রাবেয়া তার স্বামীর সংসার করবে না বলে সাফ জানিয়ে দিলে উভয়পক্ষের লোকজন একাধিকবার শালিস বৈঠকে বসে রাবেয়াকে ৬০ হাজার টাকা নগদ পরিশোধ করে এবং মামলা তুলে নেয়ার কথা বলে এবং সে এ সিদ্ধান্তের বাহিরে যাবে না বলেও শালিস বৈঠকে জানায়। কিন্তু পরবর্তীতে রাবেয়া মামলা তুলে না নিয়ে শাকিলের কাছে আরো এক লাখ টাকা দাবি করে। ঘটনার দিন দুপুর ১২টায় বিবাদী পক্ষের ২নং আসামী মোঃ সেলিম আখন তার পিতা দেলোয়ার হোসেন ও মাতা ফাতেমা বেগম চাঁদপুর আদালতে এ মামলার হাজিরা শেষে আদালত থেকে বেরিয়ে বাড়ি ফেরার পথে বঙ্গবন্ধু সড়কে এলে মামলার বাদী রাবেয়া বেগমের দু’ভাই সাইফুল ইসলাম ও সেলিমসহ আরো ৮/১০জন যুবক বিবাদী সেলিমের উপর দেশীয় অস্ত্র দিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে শরীরের বিভিন্ন অংশে রক্তাক্ত জখম করে। এ সময় আহত সেলিম ও তার বাবা-মায়ের ডাক চিৎকারে স্থানীয় আশপাশ লোকজন ঘটনাস্থলে এসে ঘটনার সাথে জড়িত ফরিদগঞ্জ উপজেলার বদরপুর গ্রামের আমির হোসেন পাটওয়ারীর ছেলে ফরহাদ পাটওয়ারী (১৮)-কে আটক করে।
এ সময় সাথে থাকা অন্যরা দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। পরে এ ঘটনা চাঁদপুর মডেল থানায় জানালে, মডেল থানার এসআই ওমর ফারুক সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে ফরহাদ পাটওয়ারীকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। আহত সেলিম বর্তমানে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। আহতের পরিবার জানায়, এ ঘটনায় তারা মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছে।