আগুন সন্ত্রাসদেরকে আর দাঁড়াতে দেয়া হবে না: ডা:দীপু মনি

স্টাফ রিপোর্টার: ॥ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর যুগ্ম সম্পাদক ও চাঁদপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ডাঃ দীপু মনি বলেছেন, আগুন সন্ত্রাসদেরকে আর দাঁড়াতে দেয়া হবে না। তাদেরকে বিগত দিনের মত জনগণকে সাথে নিয়ে রুখে দেয়া হবে। দেশের উন্নয়নকে বাঁধাগ্রস্থ করার জন্য তার বার বার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা দেশের শান্তি ও জনগণের নিরাপত্তায় ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করছি।

বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে চাঁদপুর হাসান আলী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জেলা পুলিশের আয়োজনে মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও বাল্য বিবাহ বিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, মাদক প্রতিরোধ করতে হলে অভিভাবকদেরকেই এগিয়ে আসতে হবে। শুধমাত্র পুলিশের পক্ষে সম্ভব নয় মাদকের ভয়াবহতা রোধ করা। বাল্য বিয়ে প্রতিরোধে মেয়েদেরকে সাহসী ভূমিকা নিতে হবে। সামাজিক কোন কারণে মেয়েরা যেন আত্মহননের পথে না যায়। এসব বিষয়ে তাদেরকে সচেতন করে তুলতে হবে।

দীপু মনি বলেন, বাংলাদেশ পুলিশের অনেক গৌরবের ইতিহাস রয়েছে। শান্তি রাক্ষায় ১৯৭১ সালে আমরা তাদের ত্যাগ দেখেছি। এখনো জঙ্গী প্রতিরোধে পুলিশ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। যা খুবই প্রশংসনীয়। আমাদের দেশকে আরো এগিয়ে নিতে ১৬ কোটি মানুষকে সন্ত্রাস, জাঙ্গি ও মাদক প্রতিরোধে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

প্রধান আলোচকের বক্তব্যে পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাাটোয়ারী বলেন, বঙ্গবন্ধু আমাদেরকে স্বাধীন ভুখন্ড দিয়েছেন। যার কারণে আমরা বিশে^র কাছে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারি। জঙ্গি নির্মূল করতে গিয়ে আমাদের অনেক পুলিশ সদস্য আহত ও নিহত এবং অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছেন। ২০১৩ থেকে ১৫ সাল পর্যন্ত পুলিশ আগুন সন্ত্রাসদের যেভাবে প্রতিহত করেছেন, সেটাও আমাদের জন্য গর্ব।

তিনি হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, দেশকে এখন আবার যারা অশান্ত করার চেষ্টা করছেন। তাদেরকে বলছি, সাধারণ মানুষকে সাথে নিয়ে পুলিশ তা রুখবে।

আইজিপি বলেন, মাদকের করাল গ্রাসে শহর থেকে গ্রামে যুব সমাজের মধ্যে এর বিস্তার লাভ করেছে। মাদক প্রতিরোধ করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর নীতি অনুসরণ করে পুলিশ কাজ করবে। জনগণ সাথে থাকলে সমাজের সকল ধরনের অপরাধ নির্মূলে পুলিশের কাজ করা সম্ভব।

আইজিপি আরো বলেন.জঙ্গীবাদ বিরোধী অভিযানে পৃথিবীর মধ্যে বাংলাদেশ প্রথমস্থানে রয়েছে। জঙ্গীবাদ দমনে বাংলাদেশ পুলিশ পৃথিবীর বুকে রুল মডেল। ১৩-১৪ ও ১৫সালে পুলিশ বাহিনী আগুন সন্ত্রাস এ দেশ থেকে রুখে দিয়ে ছিল। এখানে সন্ত্রাস,জঙ্গীবাদের স্থান নেই। তারা মাথা চারার দিয়ে উঠলে তাদেরকে কঠোর ভাবে রুখে দেওয়া হবে। যত দিন জঙ্গীবাদ নিমূল করা না হবে,তত দিন তাদের বিরুদ্বে যুদ্ব করে যাব।

চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মো. শামসুন্নাহারের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি এস.এম. মনিরুজ্জামান, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রান ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, চাঁদপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ ওচমান গণি পাটওয়ারী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মইনুল হাসান, স্বাধীনতা পদক প্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ সৈয়দা বদরুন্নাহার প্রমূখ।