আগুন নিয়ে খেলা করতে গিয়ে ও মোমের আগুনে ২শিশুর শরীর আগুনে পুড়ে জ¦লসে গেছে

শওকতআলী॥

চাঁদপুরে আগুন দিয়ে খেলা করতে গিয়ে ও মোমের আগুনে মীম(৮) ও আলিফ(৩মাস)বয়সের ২শিশুর শরীরে আগুন লেগে আগুনে পুড়ে জ¦লসে গেছে। তাদেরকে প্রথমে চাঁদপুর সরকারী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়ার পর অবস্থার অবনতি দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত ৯টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন বিভাগে রেফার করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে,বুধবার বিকেল ৩টায় চাঁদপুর -শরীয়তপুর লাগোয়া ভেদেরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর কাঁচিকাটা প্রধানিয়া বাড়িতে ও সদর উপজেলার বিষ্ণুপুর এলাকার মিজি বাড়িতে।
আহত শিশুদের অভিভাবকের সাথে আলাপ কালে তারা জানান, শিশু মীম বিকেল ৩টায় তার সাথের শিশুদের নিয়ে খেলা করছিল। এক পর্যায়ে সে বাড়ি থেকে দিয়াশলাই(মেছ) এনে শুকনো খেরের মধ্যে আগুন লাগিয়ে দিয়ে অন্য শিশুদের সাথে আনন্দে মেতে উঠে। হঠাৎ খেলার ছলে শিশু মীমের শরীরে থাকা জামায় আগুন লেগে যায়। মুহুতের মধ্যে আগুন সমস্ত শরীরে লেগে গিয়ে শরীর আগুনে জ¦লসে যায়। তার চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে এসে পানি দিয়ে আগুন নিবালেও ততক্ষনে তার পুরো শরীর পুড়ে যায়। পরে তার আত্বীয়-স্বজন তাকে উদ্বার করে চিকিৎসার জন্য চাঁদপুরে নিয়ে আসে। অপর দিকে বিকেল ৪টায় সদর উপজেলার বিষ্ণুপুর এলাকার মিজি বাড়িতে ৩মাসের শিশুকে ঘরের ভিতর বিছানায় শোয়ায়ে রেখে তার মা একটি মোম জ¦ালিয়ে পাকের ঘরে যায় কাজ করার জন্য। এরই মধ্যে শিশুর শরীরে মোমের আগুন লেগে শিশু আলিফের শরীর জ¦লসে পুরো শরীর আগুনে পুড়ে যায়। তাৎক্ষনিক তার চিৎকারে শিশুর মা দৌড়ে এসে আগুন নিভালেও শিশুর পুরো শরীর আগুনে পুরে যায়। তাৎক্ষনিক তাকে উদ্বার করে চাঁদপুর সরকারী হাসপাতালে এনে ভর্তি করা হয়। পরে শিশু ২টির অবস্থার অবনতি দেখে হাসপাতালের চিকিৎসক মিজানুর রহমান ও নাজমুল আবেদীন তাদেরকে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন বিভাগে রেফার করে।